ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে ৩য় ইউনিটে উন্নয়ন কাজের শ্রমিকদের, উৎপাদন কাজে নিয়োগের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করে আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষনা করেছেন, তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে শ্রমিক আন্দোলন পরিচালনা কমিটির।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি গেট বাজারে, তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিক আন্দোলন পরিচালনা কমিটির অস্থায়ী কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন ও আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষনা করেন।

সংবাদ সম্মেলন থেকে তারা আগামী ২১ জানুয়ারী তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান গেটে বিক্ষোভ মিছিল, ২৪ জানুয়ারী পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এর মাধ্যমে প্রধান মন্ত্রী বরাবর স্বারকলিপি প্রদান, ২৮ জানুয়ারী ফুলবাড়ী উপজেলা সদরে বিক্ষোভ মিছিল ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে প্রধান মন্ত্রী বরাবর স্বারকলিপি প্রদান কর্মসূচি ঘোষনা করেন।

সংবাদ সম্মেলনে তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিক আন্দোলন পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোঃ হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে, লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, শ্রমিক আন্দোলন পরিচালনা কমিটির সাধারন সম্পাদক মো. আবু সাঈদ। সংবাদ সম্মেলনে সাধারন সম্পাদক মোঃ আবু সাঈদ বলেন, আমরা ৩য় ইউনিটের উন্নয়ন কাজে নিয়োজি থেকে, কাজের দক্ষতা অর্জন করেছি, এখন শেষ হয়ে গেছে। শুরু হচ্ছে উৎপাদন কাজ, উৎপাদন কাজে দক্ষ শ্রমিকদেরকে নিয়োগ করলে বিদ্যুৎ উৎপাদনে গতি আসবে।

তিনি আরও বলেন, তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৩য় ইউনিটের সহ¯্রাধিক শ্রমিক উন্নয়ন কাজে নিয়োজিত ছিলো, উন্নায়ন কাজ শেষ হওয়ায় এই শ্রমিকগণ এখন বেকার হয়ে গেছে, কাজ হারিয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জিবন যাপন করছে, এই কারনে,।

আমরা বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কতৃপক্ষ ও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান হারবিন ইন্টান্যাশনাল এর কতৃপক্ষের নিকট ২৬-১০-২০১৭ ইং তারিখে ও ০৯-১১-২০১৭ইং এবং ০৮-১২-২০১৭ইং তারিখে প্রায় ২শত শ্রমিক বিভিন্ন কাজে নিয়োগের আবেদন করি।

অথচ অদৃশ্য কারনে, তাপ বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ আমাদেরকে কর্মহীন রেখে, বাহির থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন ও বিতরন কাজে লোক নিয়োগ করার প্রক্রিয়া চালাচ্ছেন, এই কারনে আমাদেরকে এখন আন্দোল করতে হচ্ছে। আমাদের দাবী একটায়, আমাদের মত দক্ষ শ্রমিকদেরকে নিয়োগ না করে, বাহির থেকে কোন ওলাককে শ্রমিক পদে নিয়োগ করা যাবে না।

তিনি বলেন আমরা প্রায় এক হাজার শ্রমিক দক্ষতার সাথে ৩য় ইউনিটে কাজ করে কাজ সম্পুর্ন করেছি। বর্তমান ইউনিটটি চালু করা হয়েছে। ইউনিটটি হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়া ও বানিজ্যিক ভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হওয়ার পূর্বেই নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পুর্ন না হলে, আমরা আগামী দিনে আরো কঠোর আন্দোলন গড়ে তুলে কর্তৃপক্ষকে নিয়োগ দিতে বাধ্য করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের আন্দোলন পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম,সহ-সাধারন সম্পাদক রবিউল ইসলাম, নুর আলম, আফজাল হোসেন, মিজানুর রহমান, মহিবুল ইসলাম, দুলু মিয়া, মহাসিন আলী ও মো. শাহন আলীসহ আন্দোলনরত শতাধিক শ্রমিক।

এই বিষয়ে কথাবলার জন্য বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মান কৃত ৩য় ইউনিটের প্রকল্প পরিচালক নুরুজ্জামান এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন ভিষয়টি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান হারবিন ইন্টার ন্যাশনাল কর্তৃপক্ষ দেখবে। বড়পুকুরিয়া কয়লা ভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মাহাবুবুর রহমান এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এ বিষয়ে আমার উর্ধতন কতৃপক্ষ রয়েছে তারায় বিষয়টি দেখবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য