কুড়িগ্রামের চিলমারীতে মাদক সেবীকে ছেড়ে দেওয়াকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভ, সড়ক অবরোধ ও পুলিশের লাটিচার্জের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় পুলিশ ৫ বিক্ষোভকারীকে আটক করে।

জানাগেছে, গত বুধবার চিলমারী মহিলা ডিগ্রী কলেজ সংলগ্ন রাইচ মিল চাতাল থেকে ইয়াবা সেবনরত অবস্থায় মৌজাথানা এলাকার উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি আবদুল বারী সরকারের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৩৫) ও একই এলাকার নজরুল ইসলামে ছেলে বিজু রহমান (২৫) কে আটক করে চিলমারী থানা পুলিশ।

পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে তাদেরকে ভ্রাম্যমান আদালতে নেয়া হলে আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মির্জা মুরাদ হাসান বেগ উভয়কে ২ হাজার টাকা জরিমানা করে ছেড়ে দেয়। একই রাত সাড়ে ১১টার দিকে ডাওয়াইটারী এলাকার মোঃ মিলু মিয়া (৩৩) কে মাটিকাটা মোড় এলাকা থেকে আটক করে পুলিশ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মির্জা মুরাদ হাসান বেগ ও চিলমারী থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ কৃষ্ণ কুমার সরকার পূর্বের দুজনকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ছেড়ে দিলেও নিলুকে ভ্রাম্যমান আদালতে না নিয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা করার প্রস্তুতির পায়তারা করলে স্থানীয় জনগণ ক্ষিপ্ত হয়ে বৃহষ্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে থানার সামনে রাস্তায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এ সময় পুলিশ বিক্ষোভকারীদের উপর লাটিচার্জ করে ৫ জনকে আটক করে বেধরক মারপিট করে।

এর প্রতিবাদে মাটিকাটা মোড়ে গাছ ফেলে রাস্তা অবরোধ করলে জনতার চাপে আটককৃত ৫ জনকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় পুলিশ। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এদিকে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য