আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট থেকে: শীতে আগুন পোহাতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়ে গত দশ দিনে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানাগেছে ।

এ ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৪০ জনের মতো শিশু ও নারী। এদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

রংপুর বার্ন ইউনিট সূত্রে জানা গেছে, চলমান শৈত্যপ্রবাহ ও শীতে আগুন পোহাতে গিয়ে গত ৬ জানুয়ারি থেকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন রংপুর অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকার অর্ধশত নারী ও শিশু। তারমধ্যে লালমনিরহাট জেলার ৪ জন নারী-পুরুষ মারা যান।

হাসপাতালে ভর্তি হাওয়া এদের মধ্যে ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। আহতদের শরীরের ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ পুড়ে গেছে। গত দশ দিনে লালমনিরহাটে মারা যান, লালমনিরহাটসদর থানার, সুখময়ী (৭৫) ও সাম্মি আখতার (২৭), একই জেলার পাটগ্রামের ফাতেমা বেগম (৩২)ও আলো বেগম (২২)।

লালমনিরহাট সদরসহ উপজেলার হাসপাতাল ও বিভিন্ন ক্লিনিক ঘুরে দেখা গেছে, প্রচণ্ড শীতের কারণে নিউমোনিয়া, অ্যাজমা, কোল্ড এ্যালার্জি ও ডায়রিয়াসহ বিভিন্ন ঠাণ্ডাজনিত রোগ দেখা দিয়েছে।

তাদের মধ্যে শিশু ও বৃদ্ধার সংখ্যাই বেশি। গত ১০ দিনে শীত জনিত রোগে জেলায় অন্তত ৩ শতাধিক মানুষ আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতাালে চিকিৎসা নিয়েছে।

লালমনিরহাট সিভিল সার্জন ডা. কাসেম আলী জানান, কয়েক দিন ধরে শীতের প্রকোপ দেখা দেয়ায় ঠাণ্ডাজনিত রোগ দেখা দিয়েছে। আমরা সকলকে সতর্কতার সঙ্গে চলাফেরা করার পরামর্শ দিচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য