লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিতে ভয়াবহ সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন। বন্ধ হয়ে গেছে রাজধানীর মূল বিমানবন্দর। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বেশ কিছু বিমানও। সরকারের দাবি, একদল দুর্বৃত্ত কারাগার থেকে বন্দিদের ছিনিয়ে নেওয়া চেষ্টা করছিল। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, অনেকদিন পরে আবার এমন ভয়াবহ সংঘর্ষ দেখলো লিবিয়া। আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সরকার গভার্নমেন্ট অব ন্যাশনাল একর্ড এই সংঘর্ষের নিন্দা জানিয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছে।

সোমবার সংঘর্ষের সময় অনেক গুলির শব্দ শোনা গেছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। রাজধানীর মিতিগা বিমানবন্দর অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এখান থেকেই সব বেসামরিক বিমান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হতো। বিকালের দিকে সংঘর্ষ শেষ হওয়ার পর বিমানবন্দর একদমই খালি দেখা যায়। সংঘর্ষ ও গুলিতে অন্তত চারটি বিমান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সংঘর্ষ থামাতে ত্রিপোলির সবচেয়ে শক্তিশালী বাহিনী রাডাকে মোতায়েন করে সরকার। তারা মিতিগা বিমানবন্দর এলাকা নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে এবং পাশেই থাকা বিশাল একটি কারাগার সুরক্ষিত রাখতে সক্ষম হয় তারা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য