দিনাজপুর সদরঃ রাষ্টীয় কোষাগার হতে পেনশনসহ বেতন-ভাতা প্রদানের দাবীতে দিনাজপুর পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারিদের দুই দিনের পূর্ণদিবস কর্মবিরতির প্রথম দিন অতিববাহিত হয়েছে।

সোমবার (১৫ জানুয়ারী) সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে দিনাজপুর পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এই কর্মবিরতি কর্মসূচী পালন করে। একই দাবীতে তারা মঙ্গলবার ১৬ জানুয়ারী পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করবে। তাদের কর্মবিরতির ফলে জরুরী সেবা নিতে আসা পৌর নাগরিকরা বিড়ম্বনায় পড়েন।

 

উল্লেখ্য, সারা দেশের ৩২৭টি পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা একযোগে দুই দিনের পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করে। একই দাবীতে তারা মঙ্গলবার ১৬ জানুয়ারী পর্ণদিবস কর্মবিরতি কর্মসূচী পালন করবে।

বীরগঞ্জঃ বীরগঞ্জে পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের রাষ্ট্রিয় কষাগার থেকে বেতন-ভাতা ও পেনশনের দাবিতে কর্মবিরতী পালন করেছে। বীরগঞ্জ পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অফিসের গেট লাগিয়ে দিয়ে রাষ্ট্রিয় কষাগার থেকে বেতন-ভাতা ও পেনশনের দাবিতে কর্মবিরতী পালন করে। পৌর সচিব আব্দুল হানিফ সরদারের নেতৃত্বে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত পূর্ণ দিবস কর্ম বিরতী পালন করেছে। পৌর সচিব আব্দুল হানিফ সরদার জানান, কেন্দ্রীয় কর্মসুচীর অংশ হিসেবে সারা দেশের ন্যায় বীরগঞ্জে এই কর্মসুচী পালন করা হচ্ছে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত সংগ্রাম চলবেই।

ঘোড়াঘাটঃ সারা দেশের ন্যায় দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট পৌরসভার সকল কর্মকর্তা কর্মচারী গতকাল সোমবার সকাল থেকে ৪৮ ঘন্টা কর্ম বিরতী পালন করছে। সরকারী কোষাগার থেকে শত ভাগ বেতন বোনাসের দাবীতে বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন ওই কর্মসূচীর ডাক দেয়। তারই ধারাবাহিকতায় ঘোড়াঘাট পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারী সকাল ৯টা থেকে সকল প্রকার দাপ্তরিক কাজ বন্ধ করে পৌরসভা ভবনের সম্মুকে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে। ঘোড়াঘাট পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত কোষাধক্ষ শাহাদত হোসেন জানান, আগামীকাল মঙ্গলবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত এ কর্মসূচি চলবে। তিনি আরো জানান, ৪৮ ঘন্টার কর্মসূচি সফল করে পরবর্তি কর্মসূচি কেন্দ্রের নির্দেশনা পেলে শুরু করা হবে। অবস্থান কর্মসূচি চলাকালে ঘোড়াঘাট পৌরসভার প্যানেল মেয়র আবদুল কাদের উপস্থিত হয়ে তাদের দাবীর প্রতি সমর্থন জানান।

বোচাগঞ্জঃ সরকারি কোষাগার থেকে বেতন ভাতা ও পেনশন সহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা প্রদানের দাবীতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে আজ থেকে লাগাতার ৪৮ ঘন্টা কর্ম বিরতি পালন করছে সেতাবগঞ্জ পৌরসভা কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। ৪৮ ঘন্টার লাগাতার কর্ম বিরতির ফলে পৌরসভার সকল কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়েছে। পৌরবাসী বিভিন্ন কাজে পৌরসভায় আসলেও কর্ম বিরতির কারনে কোন কাজ হচ্ছে না এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন পৌরবাসীরা। সেতাবগঞ্জ পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশনের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা জানান, সরকারি কোষাগার হতে বেতন, ভাতা ও পেনশনের দাবীতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে আসছেন তারা। অবিলম্বে বর্তমান জনবান্ধব সরকার তাদের এই দাবী মেনে নেবেন বলে তারা আশা ব্যক্ত করেন।

পার্বতীপুরঃ সারাদেশের ন্যায় পৌর সার্ভিস এসোসিয়েশন পার্বতীপুর পৌর কর্মচারীদের উদ্যোগে দুই দিনব্যাপী কর্মবিরতী পালন করছে পৌর কর্মচারীগন। সারাদেশে অংশ নিচ্ছে ৩২ হাজার ৫শ জন কর্মচারী ও ৩শ ২৭টি পৌরসভা। আজ সোমবার থেকে দুই দিন ব্যাপী বাংলাদেশ পৌর সার্ভিস এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কর্মসূচী অংশ হিসাবে পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন ভাতা ও পেনশন সরকারী কোষাগার থেকে পাওয়ার দাবীতে কর্মচারীরা দুই দিনব্যাপী কর্মবিরতী পালন করছে। পার্বতীপুর পৌর সংগঠনের সভাপতি মিনারুল ইসলাম খান ও সাধারন সম্পাদক মশিউর রহমান জানান আমরা ১৫ ও ১৬ জানুয়ারী দুই দিন কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে কর্মবিরতী পালন করছি। সেই সাথে সরকারের কাছে আমাদের দাবিদাবাগুলো দ্রুত মেনে নেওয়ার জন্য আহ্বান জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য