শীতে আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক নারী পাঁচদিন পর মারা গেছেন।

রোববার সকাল পৌনে ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয় বলে রংপুর বার্ন ইউনিটের প্রধান ডা. মারুফুল ইসলাম জানান।

মৃত আফরোজা খাতুন রংপুর নগরীর নজিবের হাট এলাকার বেলাল হোসেনের স্ত্রী।

মারুফুল বলেন, খড়কুটো জ¦ালিয়ে আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ আফরোজা মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

এই মাসেই আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এই নিয়ে ১০ জনের মৃত্যু হল বলে জানান তিনি।

এর আগে মারা যাওয়া নয়জন হলেন- ঠাকুরগাঁও শহরের থানাপাড়ার আঁখি আক্তার (৪৫), রংপুরের জুম্মাপাড়া পাকারমাথার রুমা খাতুন (৬৫), কাউনিয়া উপজেলার গোলাপী বেগম (৩০), লালমনিরহাট সদরের শাম্মী আখতার (২৭), পাটগ্রাম উপজেলার ফাতেমা বেগম (৩২), আলো বেগম (২২), নীলফামারী সদরের রেহেনা বেগম (২৫), রংপুর সিটি করপোরেশেনের মাহিগঞ্জের চাঁন মিয়ার স্ত্রী মনি বেগম (২৫) এবং নীলফামারী সদরের সোনারমের আমজাদ হোসেনের স্ত্রী মারুফা খাতুন (৩০)।

জানুয়ারির প্রথম থেকেই সারা দেশে শীতের তীব্রতা বেড়েছে। দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের ওপর দিয়ে বয়ে চলা তীব্র শৈত্য প্রবাহের মধ্যে গত ৮ জানুয়ারি পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ার তাপমাত্রা সব রেকর্ড ভেঙে ২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে আসে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য