‘অনেক দিন ধইরা বুকের ব্যথা আর শ্বাসকষ্টে ভুগতাছি। মধ্যে মধ্যে শ্বাসকষ্ট এত বাইরা যায় গা যে, মনে হয় আর বাঁচুম না। মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের এ সরকার আমারে অনেককিছু দিছে। আর কিছু চামু না। মরণের আগে একটাই এহন চামু।

যে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে যুদ্ধে গেলাম সেই বঙ্গবন্ধু কন্যারে আরেকবার না দেইখা মরলে শান্তি পামু না। আমার এহন শেষ ইচ্ছে শেখ হাসিনারে আরেক নজর দেইখা শান্তিতে মরতে চাই।’

বাংলাদেশ বেতারের পক্ষ থেকে নগদ অর্থ ও একটি শাড়ি উপহার নেয়ার সময় উপর্যুক্ত কথাগুলো বলেন নানা রোগে শয্যাশায়ী বীর প্রতিক তারামন বিবি। তিনি বলেন, আজ থেকে কয়েক বছরের মধ্যে বাংলাদেশে আর কোন মুক্তিযোদ্ধা জীবিত থাকবে না।

অনেক কষ্টার্জিত এ স্বাধীন দেশের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযোদ্ধাদের সঠিক ইতিহাস জানা ও মাদকমুক্ত থাকার পরামর্শ দেন। সেই সাথে সরকার ও সমাজের সকল মানুষকে দেশপ্রেমি হয়ে হাতে হাত রেখে দেশকে এগিয়ে নেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কুড়িগ্রামের রাজিবপুর উপজেলার কাচারিপাড়া গ্রামে তার নিজ বাড়িতে এ উপহারগুলো গ্রহন করেন তিনি। এ সময় বাংলাদেশ বেতারের পক্ষ থেকে প্রতিনিধিত্ব করেন ঠাকুরগাঁও বেতার কেন্দ্রের অনুষ্ঠান উপস্থাপক খন্দকার আবুল মঞ্জুর।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য