এক দিনের ব্যবধানে ফের নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় জামান হাসকিং মিল হতে দুই শত মণ ধান চুরি হয়েছে। বুধবার ভোর রাতে উপজেলার পাঙ্গামটকপুর ইউনিয়নের চল্লিশপীর মাজার জালালের মোড় এলাকার তৈয়বুর রহমানের মালিকানাধীন জামান হাসকিংমিলের তালা ভেঙেওই ধান চুরি হয়।

রাতে উপজেলার গোমনাতি ইউনিয়নের দক্ষিন গোমনাতি এলাকার সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রুম্মানের মালিকানাধীন চৌধুরী হাসকিং মিলের তালা ভেঙে একই কৌশলে ৮৮ মণ ধান চুরি হয়। পর পর দুই দিনে দু’টি মিলে একই কৌশলে ধান চুরি হওয়াতে উপজেলার হাসকিং মিল মালিকরা দুশ্চিন্তায় রয়েছে।

মিলের মালিক তৈয়বুর রহমান জানান, আমার মিলে রাতে কেউ পাহাড়া না থাকার সুবাদে মিলের তালা ভেঙে দুই শত মণ ধান চুরি হয়। সকালে মিলে গিয়ে দেখি তালা ভাঙা ও মিলে রক্ষিত ধান নাই।
পাঙ্গামটকপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল মজিদ ওই মিলের ধান চুরির সত্যতা নিশ্চিত করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য