দিনাজপুর সংবাদাতাঃ হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প­ান্ট প্যাথলজী বিভাগের প্রফেসর ড. মোঃ মামুনুর রশিদ বলেছেন, আধুনিক প্রযুক্তির যুগে কৃষি এখন চ্যালেঞ্জিং কৃষি। একজন কৃষক ইচ্ছ করলেও আবাদ করে মাসে ১ লক্ষ টাকা কামাই করতে পারে। আমরা দেখেছি এগ্রি প­াসের পণ্য ব্যবহার করে কৃষক লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করে চলেছেন।

৯ জানুয়ারী মঙ্গলবার চ্যাহেলগাজী ইউনিয়নের বাঁশেরহাট ইক্ষু সেন্টারের পাশে “মাটি ও ফসলের স্বাস্থ্য রক্ষায় সুপার ব্রান্ডের পণ্য” শীর্ষক ল¶ টাকার চাষীর মাঠ দিবস এর উদ্বোধন করতে গিয়ে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন।

এগ্রি প­াস লিঃ এর চীফ এক্সিকিউটিভ কৃষিবিদ সরদার আলী মুর্তুজার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হাবিপ্রবির মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. একেএম মোশাররফ হোসেন, উদ্ভিতত্ত¡ বিভাগের প্রফেসর ড. মোঃ আহসানুল কবির, কৃষিতত্ত¡ বিভাগের প্রফেসর ড. মোঃ শফিকুল ইসলাম, উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ আকলিমুজ্জামান, কৃষিবিদ মোঃ হাসানুদৌলা।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন এগ্রি প­াসের জোনাল সেলস ম্যানেজার রংপুর এর মোঃ আব্দুল জব্বার। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন প­ানিং এক্সিকিউটিভ সামিউল ইসলাম। এগ্রি প­াস লিঃ এর পণ্য সার, চারা ও কীটনাশক ব্যবহার করে যারা সফল কৃষক হয়েছেন তারা হলেন চাষী মোঃ নজর“ল ইসলাম, আজিজুল হক ও মোঃ আনোয়ার হোসেন।

সভাপতির বক্তব্যে সরদার আলী মুর্তুজা বলেন, আমরা চাই একজন কৃষক প্রতি মাসে তার আবাদের ফসল বিক্রি করে ১ লক্ষ টাকা যাতে আয় করতে পারে। সেজন্য এগ্রি প­াস তাদের উপকরণ দিয়ে কৃষকদের সাবলম্বি করে গড়ে তুলার চেষ্টা করছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য