আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটে শীতের প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে সন্ধ্যা হত্তয়ার সাথে সাথে কুয়াশা ঢেঁকে যাচ্ছে এ জনপদ। সারারাতে বিরাজ করা কুয়াশা পর দিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত স্থায়ী থাকছে।

কুয়াশার সাথে হিম বাতাস বয়ে যাত্তয়ায় ঠান্ডার পরিধি বেড়ে যাচ্ছে। গত পাঁচ দিন থেকে এ অবস্থা বিরাজ করছে। এতে লালমনিরহাট জেলার ৫টি উপজেলার তিস্তা-ধরলা নদী সংলগ্ন ছোট বড় ১৫/১৬ টি চরাঞ্চলের মানুষ ঠান্ডা ঝুঁকিতে পড়ছে।

এদিকে লালমনিরহাটে শীতজনিত রোগে আক্রান্তদের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। গত ৪৮ ঘন্টায় শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হয়েছে অন্তত অর্ধশতাধিক রোগী সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাসেবা নেয়ার খবর পাওয়া গেছে। আক্রান্তদের মধ্যে ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়া রোগীর সংখ্যাই বেশি।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, শীত বৃদ্ধি পেতে শুরু করায় শীত জনিত নানা রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। তবে এ রোগে আক্রান্তদের অধিকাংশই শিশু ও বৃদ্ধ। অপরদিকে, ঘন কুয়াশার কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে ট্রেন ও বাসের গতি কমিয়ে চলাচল করছে।

লালমনিরহাট সিভিল সার্জন ডাঃ কাসেম আলী জানান, গত ৫ দিন ধরে শীতের প্রকোপ দেখা দেয়ায় ঠান্ডাজনিত রোগ দেখা দিয়েছে। আমরা সকলকে সতর্কতার সঙ্গে চলাফেরা করার পরামর্শ দিচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য