আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয় করণ, শতকরা ৫ ভাগ বাৎসরিক প্রবৃদ্ধি, বৈশাখী ভাতাসহ ৯ দফা দাবিতে গাইবান্ধায় শিক্ষক কর্মচারি সংগ্রাম কমিটির উদ্যোগে এক মানববন্ধন কর্মসূচী ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে শহরে আসাদুজ্জামান মার্কেটের সামনে এক মানববন্ধন চলাকালে শিক্ষকদের বিভিন্ন দাবি নিয়ে বক্তব্য রাখেন অধ্যক্ষ একরামুল হক খান, নেয়ামুল আহসান পামেল, মাহবুব আলম কোট, কাজী আবু রাহেল শফিউল্লা, রবিউল ইসলাম রোকন প্রমুখ।

মানববন্ধন শেষে শিক্ষকদের একটি বিশাল বিক্ষোভ মিছিল শহর প্রদক্ষিন করে উপজেলা চত্বরে অবস্থান নেয়। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচিতে বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও মাদ্রাসার পাঁচ শতাধিক শিক্ষক-কর্মচারি অংশ গ্রহন করেন।

বে-সরকারি শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণ, ৫% বাৎসরিক প্রবৃদ্ধি ও বৈশাখী ভাতাসহ ১১ দফা দাবী আদায়ের লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলা শিক্ষক-কর্মচারী সংগ্রাম কমিটির উদ্যোগে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১১টায় স্থানীয় চৌমাথা মোড়ে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন চলাকালে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা উপজেলা শিক্ষক-কর্মচারী সংগ্রাম কমিটির সহ-সভাপতি সহকারী অধ্যাপক আতাউর রহমান মন্ডলের সভাপতিত্বে শিক্ষকদের বিভিন্ন দাবি নিয়ে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা শিক্ষক-কর্মচারী সংগ্রাম কমিটির সাধারণ সম্পাদক শহিদুল্ল্যাহ কায়সার লাভলু, সহকারী অধ্যাপক শফিকুল ইসলাম, রওনকজ্জামান, প্রধান শিক্ষক বিকাশ মিত্র নির্মল, সুপার মোঃ জাহিদুল ইসলাম, প্রভাষক আব্দুর রাজ্জাক, নয়ন কুমার, এএসএম রফিকুল ইসলাম মন্ডল রিপন ও সহকারী শিক্ষক মেহেদী হাসান প্রমুখ।

মানববন্ধন শেষে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে উপজেলা শিক্ষক-কর্মচারী সংগ্রাম কমিটির ১১ দফা দাবী আদায়ের লক্ষ্যে একটি স্মারকলিপি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে প্রেরণ করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য