বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) মার্কেটিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ফেরদৌস রহমানকে শহীদ মুখতার ইলাহী হল’র প্রভোস্টের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। বৃস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইব্রাহীম কবীর এক অফিস আদেশে এই নিয়োগ প্রদান করেন।

এর আগে বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. শফিকুর রহমান (শফিক আশরাফ) কে হলটির প্রভোস্টের চলতি দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছিল। তাঁকে সে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়ে নতুন করে প্রভোস্ট হিসেবে ফেরদৌস রহমানকে নিয়োগ প্রদান করায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও ব্যাপক আলোচিত-সমালোচিত হয়েছে।

নিদ্রিষ্ট সময়ের পূর্বেই দায়িত্ব থেকে অব্যহতির ব্যাপারে ড. শফিক আশরাফ বলেন, ‘ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি চক্র ধরার বিষয়ে আমি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছি। একটি গ্রুপ আমার বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ ছিল এবং আমার পদত্যাগের দাবিতে মানববন্ধনও করেছে।

কি কারনে তাঁকে অব্যাহতি প্রদান করা হলো তার প্রকৃত কারণ জানেননা বা তাঁকে জানানো হয়নি বলেও জানান ড. শফিক আশরাফ।

জানা যায়, প্রভোস্টের দায়িত্ব চলতি হোক আর নিয়োগ হোক এটা দুই বছরের জন্য প্রদান করা হয়।

তবে নিদ্রিষ্ট সময়ের পূর্বেই কি কারনে তাঁকে দায়িত্ব থেকে সড়ানো হলো সে বিষয়ে জানার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইব্রাহীম কবিরের মুঠোফোনে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য