দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনার জন্য পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নাম ঘোষণা করেছে উত্তর কোরিয়া। পিয়ংইয়ং রোববার জানিয়েছে, দুই কোরিয়ার মধ্যে শান্তি স্থাপনের লক্ষ্যে গঠিত কমিটির প্রধান রি সন গুয়ানের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের এ প্রতিনিধিদল গঠন করা হয়েছে।

উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া গত শুক্রবার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, দুই দেশ দুই বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে প্রথমবারের মতো মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিক আলোচনায় বসবে। চিরশত্রুভাবাপন্ন দুই কোরিয়ার সীমান্তবর্তী গ্রাম পানমুনজমে এ বৈঠকে অনুষ্ঠিত হবে।

উত্তর কোরিয়ার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা এবং সেইসঙ্গে আমেরিকার সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ সামরিক মহড়ার ফলে কোরীয় উপদ্বীপে সৃষ্ট উত্তেজনা প্রশমনের চেষ্টা করা হবে এ আলোচনায়।

সেইসঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ২০১৮ সালের শীতকালীন অলিম্পিকে উত্তর কোরিয়ার অংশগ্রহণের উপায় নিয়েও এই আলোচনায় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

কোরীয় উপদ্বীপে সাম্প্রতিক সময়ে প্রবল উত্তেজনা সত্ত্বেও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন গত সোমবার ঘোষণা করেন, তার দেশ দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনায় বসতে প্রস্তুত রয়েছে। সেইসঙ্গে আগামী মাসে অনুষ্ঠেয় শীতকালীন অলিম্পিকে উত্তর কোরিয়ার ক্রীড়াবিদদের প্রেরণ করতেও নিজের প্রস্তুতির কথা ঘোষণা করেন কিম জং-উন।

তার এ ঘোষণাকে কোরীয় উপদ্বীপে উত্তেজনা প্রশমনের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হিসেবে দেখছেন পর্যবেক্ষকরা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য