গত ৫ দিন ধরে কুয়াশার চাদরে ঢাকা রয়েছে নীলফামারী। সেই সাথে হিমেল বাতাশ আর শৈত্য প্রবাহে কাহিল হয়ে পড়েছে এখানকার জনজীবন। এতে করে চরম বেকায়দায় পড়েছে খেটে খাওয়া ও নিম্ম আয়ের মানুষজন।

কনকনে ঠান্ডা আর হিমেল বাতাসে কাবু হয়ে পড়েছেন তারা। দিনভর ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন হয়ে থাকছে পথ-ঘাট। দিনে রাতে সমানে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টির মতো কুয়াশাপাত হচ্ছে। তীব্র শীতের কারণে স্কুল ও কলেজ গুলোতে শিক্ষার্থীর উপস্থিতি কমে গেছে।

ঘন কুয়াশার কারণে আজ রবিবারও সারাদিন সূর্য উকিঁ দিতে পারেনি। দিনের বেলায় যানবাহন গুলোকে হেড লাইট জ্বালিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে। রাস্তা-ঘাটে লোকজন চলাচল কমে গেছে। প্রয়োজন ছাড়া লোকজন ঘরের বাহিরে বের হচ্ছে না।

গ্রামে ও হাট-বাজার গুলোতে দেখা দেছে লোকজন খড়-কুটে জ্বালিয়ে শীত নিবারনের চেষ্টা করছেন। এদিকে শীত বস্ত্রের অভাবে শীতার্ত মানুষজন খড়কুটে জ্বালিয়ে শীত নিবারনের চেষ্টা চালাচ্ছেন। সবচেয়ে বেশী বেকায়দায় পড়েছে বয়স্ক ও শিশুরা।

উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও হাসপাতাল গুলোতে শীতজনিত রোগীদের ভিড় বাড়ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য