দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়েছে। এবার কাহারোল উপজেলার ১২১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ২৬টি কিন্ডারগর্ডেন বিদ্যালয়ে ২০১৭ইং সালে পিএসসি পরীক্ষায় ২ হাজার ৯৬৯ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে।

পাশের হার বাড়লেও জিপিএ ৫ পেয়েছে মাত্র ১৬৪ জন। এই ধরনের ফলাফল নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অভিভাবকেরা। গতকাল কয়েকজন অভিভাবকের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলিতে ঠিকমত ক্লাস হয় না এবং শিক্ষকেরা সঠিক সময়ে স্কুলে উপস্থিত হন না।

তারা আরো বলেন, এই উপজেলায় প্রায় ৩ হাজার শিক্ষার্থীদের মধ্যে মাত্র ১৬৪ জন জিপিএ ৫ পেয়েছে। তারা বলেন, শিক্ষার মান ভালো না হওয়ার কারণে ফলাফল বিপযয়ে গেছে। অভিভাবকেরা বলেন, স্কুলের মনিটরিং ব্যবস্থা না থাকার কারণে শিক্ষকেরা ঠিকমত ক্লাস করান না।

এদিকে ফলাফল বিপযয়ের কারণে হতাশা প্রকাশ করছেন শিক্ষার্থীরা। এ ব্যাপারে কাহারোল উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আফজাল হোসেনের সঙ্গে আমাদের প্রতিনিধি কথা হলে তিনি বলেন, আমরা মনিটরিং ঠিকমত করি। কিন্তু শিক্ষকের খামখেয়ালির কারণে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার মান খারাপ হয়েছে।

ফলাফল বিপযয়ের বিষয়ে তিনি বলেন, শিক্ষকরা ঠিকমত লেখাপড়া করালে ফলাফল বিপযয়ে হত না। তিনি আরো বলেন, সুষ্ঠ মনিটরিং করে আগামীতে ফলাফল যাতে ভালো হয় সেই ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য