বিরল উপজেলা বিএনপির অস্থায়ী দলীয় কার্যালয় থেকে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০ টায় দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মাধ্যমে গণতন্ত্র হত্যা দিবস পালন উপলক্ষ্যে কালো পতাকা মিছিল পুলিশের বাঁধায় বের করতে না পারলেও দলীয় কার্যালয়ের সামনে পথসভার মাধ্যমে গণতন্ত্র হত্যা দিবস পালন করে বিএনপি।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি রফিকুল ইসলাম ও সাধারন সম্পাদক প্রভাষক মিজানুর রহমান বলেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারী দশম সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের নামে বর্তমান অবৈধ আওয়ামী লীগ সরকার গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে। বিএনপি ৫ জানুয়ারী গণতন্ত্র হত্যা দিবস আখ্যায়িত করে এদিনে কালো পতাকা মিছিল ঘোষনা করেন।

সারাদেশের ন্যায় বিরল উপজেলা বিএনপি দলীয় কার্যালয় থেকে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০ টায় কালো পতাকা মিছিলে সরকারের পেটুয়া বাহীনি পুলিশ বাঁধা প্রদান করে। এ সময় বিএনপির সাধারন সম্পাদক প্রভাষক মিজানুর রহমান ও সাংগঠনিক সম্পাদক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আ ন ম বজলুর রশিদসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দের সাথে সরকারের পেটুয়া বাহীনি পুলিশ অসৌজন্য মুলক আচরণ করেন।

এতেই বোঝা যায় অবৈধ আওয়ামী লীগ সরকার তাঁর পেটুয়া বাহীনি পুলিশ দিয়ে বিরোধী দলের সকল রাঝনৈতিক অধিকার হরন করেছে।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং সাধারন সম্পাদক মিজানুর রহমানের পরিচালনায় পথসভায় বক্তব্য রাখেন, সহসভাপতি জিন্নাত আরা, সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আ ন ম বজলুর রশিদ, দপ্তর সম্পাদক ও পৌর বিএনপির আহ্বায়ক লিয়াকত আলী, সহদপ্তর সম্পাদক মিজানুর রহমান, তথ্য ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক মোশারফ হোসেন জুয়েল, সমবায় বিষয়ক সম্পাদক আবদুল হাকিম, যুবনেতা আবদুর রাজ্জাক, মহিলা দলের সম্পাদিকা জেবুন নাহার, তাঁতী দলের আহ্বায়ক আশাদুল হক হিরা, যুগ্নআহ্বায়ক লুৎফর রহমান, ছাত্রনেতা জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য