দেশ ও জনগণের প্রতি বিএনপির কোনো মমতা নেই। ক্ষমতার জন্য পাগল তারা। অসহায় নিরীহ ঘুমন্ত মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করে বিএনপি-জামায়াত জঙ্গি গোষ্ঠী এদেশকে অস্থিতিশীল করেছিলো। এখনো তারা শান্তিপ্রিয় গণতন্ত্রকামী মানুষকে ভয়ভীতি দেখান। কারণ দেশের জনগণ এখন জানে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া শুধু ক্ষমতা চান।

তিনি দেশে গণতন্ত্র সংবিধান কিছুই চায় না। ৫ জানুয়ারী শুক্রবার বিকেলে সংবিধান রক্ষা ও গণতন্ত্রের বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভায় রংপুরের আওয়ামী লীগ নেতারা এসব কথা বলেন।

রংপুর মহানগরীর বেতপট্টিস্থ দলীয় কার্যালয়ে জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম রাজু, যুগ্ম সম্পাদক মাজেদ আলী বাবুল, কোষাধ্যক্ষ আবুল কাশেম, দপ্তর সম্পাদক তৌহিদুর রহমান টুটুল, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিউর রহমান সফি, সাধারণ সম্পাদক বাবু তুষার কান্তি মন্ডল, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম তোতাজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হানান সিদ্দীকি রনী সহ যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, মহিলা লীগের জেলা ও মহাগরের নেতৃবন্দ।

এসময় বক্তারা বলেন ২০১৪ সালের গণতন্ত্র রক্ষার সেই নির্বাচন প্রতিহত করার নামে বিএনপি-জামায়াত জোট সারাদেশে জ¦ালাও পোড়াও, বাসে অগ্নিসংযোগ করে মানুষ হত্যা করেছিলো। তারা আগামীতে যাতে নির্বাচন প্রতিহত করার নামে আর কোন অরাজকতা সৃষ্টি করতে না পারে সেদিকে সতর্ক থাকতে হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য