আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট প্রতিনিধি : লালমনিরহাটের পাটগ্রাম থানা পুলিশের হাতে একটি পিস্তুল ও ৪৮ রাউন্ড গুলিসহ আটক ভারতীয় নাগরিকসহ দুইজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকেল এ মামলা দায়ের করেন পাটগ্রাম থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মমিনুল হক। এর আগে বৃহস্পতিবার দিনগত মধ্য রাতে পাটগ্রাম উপজেলার পশ্চিম জগতবেড় এলাকার একটি বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটক ব্যক্তিরা হলেন, ভারতের আসাম রাজ্যের কোকড়া ঝাড় জেলার গোসাইগাঁও থানার মাটিয়াপাড়া গ্রামের বাবলু মাতব্বরের ছেলে আমিনুল মাতব্বর ওরফে জাকির মাতব্বর ওরফে পাগলা আটাংকে (২৫) ও তার বন্ধু পাটগ্রাম উপজেলার পশ্চিম জগতবেড় গ্রামের সাইজুল ইসলামের ছেলে আব্দুর রশিদ (৩২)।

পাটগ্রাম থানার ওসি (তদন্ত) ফিরোজ কবির জানান, ভারতীয় নাগরিক অবৈধভাবে বাংলাদেশে প্রবেশ করে উপজেলার জগতবেড় গ্রামে বন্ধুর বাড়িতে আত্মগোপন করেছেন এমন খবরের ভিত্তিতে থানা পুলিশ ওই বাড়িটি ঘিরে ফেলে।পরে আমিনুল মাতব্বর ও তার বন্ধু বাড়ির মালিক রশিদকে আটক করা হয়।

এ সময় আমিনুল মাতব্বর ও তার বন্ধু রশিদের কাছ থেকে ৪৮ রাউন্ড গুলিসহ একটি পেট্রো বেরেটা ৭.৬৫ অটোমেটিক পিস্তুল জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় পাটগ্রাম থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মমিনুল হক বাদী হয়ে দুইজনকে আসামি করে অস্ত্র আইনে একটি এবং অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে শুধুমাত্র ভারতীয় নাগরিককে আসামি করে অপর একটি মামলা দায়ের করেন।

আটকের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আমিনুল মাতব্বর স্বীকার করেছেন, ভারতীয় বিভিন্ন থানায় তার বিরুদ্ধে ৬৩টি মামলা রয়েছে। মামলায় পুলিশি গ্রেফতার এড়াতে আড়াই মাস আগে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে তিনি বাংলাদেশে এসে বিভিন্ন এলাকা ঘুরে সবেমাত্র জগতবেড় এলাকার বন্ধুর বাড়িতে এসেছেন। ভারতীয় জেলে সাজাভোগের সময় রশিদের সঙ্গে বন্ধুত্ব হয় আমিনুল মাতব্বরের।

পাটগ্রাম থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনিশংকর কর জানান, আটক ব্যক্তিদের অস্ত্র ও অবৈধ অনুপ্রবেশ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে বিকেল ৫টার দিকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য