ভারতে ক্ষমতাসীন দল বিজেপির এক বিধায়ক বলেছেন, হিন্দুদের চেয়ে জনসংখ্যায় বেশি হয়ে ২০৩০ সালের মধ্যে ভারতের দখল নিতে মুসলিমরা বেশি বেশি সন্তানের জন্ম দিচ্ছে।

ফেইসবুকে দেওয়া এক পোস্টে রাজস্থানের আলওয়ারের বিধায়ক বানওয়ারি লাল সিঙ্গাল এ মন্তব্য করেন, খবর এনডিটিভির।

“মুসলমানরা ১২-১৪টি বাচ্চার জন্ম দিচ্ছে, তুলনায় হিন্দুদের বাচ্চার সংখ্যা এক কি দুইয়ে সীমিত। যে হারে মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে, তা হিন্দুদের অস্তিত্বকে হুমকির মুখে ফেলছে। প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রী পদে মুসলমানদের বসাতে এটি সুপরিকল্পিত ষড়যন্ত্র,” বলেন তিনি।

আগামী ২৯ জানুয়ারি আলওয়ারের সংসদীয় আসনে উপনির্বাচন, তার আগে বানওয়ারির এই ফেইসবুক পোস্ট।

“মুসলমানরা আইনপ্রণেতা হলে হিন্দুরা দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিকে পরিণত হবে,” অভিযোগ বিজেপি বিধায়কের।

পরে প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়ার (পিটিআই) করা এক প্রশ্নের জবাবে সিংহল বলেন, ভারতে মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধি নিয়ে একটি ভিডিও দেখে তিনি ফেইবসুকে ওই পোস্ট দিয়েছেন।

“অনেক কিছু বিবেচনায় নিয়ে আমি পোস্টটি লিখেছি এবং আমি এটি সরাবো না। ১২-১৪টি বাচ্চার জন্ম দিয়ে সবগুলি বিধানসভা এবং সংসদীয় আসন দখলে নিতে এবং ২০৩০ এর মধ্যে শাসন প্রতিষ্ঠা করতে এটি মুসলমানদের ষড়যন্ত্র।”

মুসলমানরা সরকারি সম্পদের অপব্যবহার ও ‘হিন্দুদের দেওয়া করের অর্থে’ পরিবারপ্রতি সর্বোচ্চ দুটি বাচ্চা নেওয়ার আইনের বিরুদ্ধে লড়াই করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য