জমকালো আয়োজন আর আতশবাজিতে রঙিন আলোর ঝলকানির মধ্য দিয়ে নতুন বছর ২০১৮ সালকে বরণ করছে বিশ্ববাসী।

এরই মধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ নতুন বছরে পা রেখেছে। বিশেষত পূর্বের দেশগুলোর ঘড়ির কাঁটাই প্রথম পৌঁছেছে নতুন বছরের ঘরে।

প্রথমেই ২০১৮ সালকে স্বাগত জানিয়েছে প্রশান্ত মহাসাগরীয় কয়েকটি দ্বীপরাষ্ট্রসহ নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া। এরপর জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, উত্তর কোরিয়া, চীন, ফিলিপাইন, সিঙ্গপুরসহ আরও অনেক দেশ নতুন বছরকে স্বাগত জানিয়েছে।

প্রতিটি দেশের প্রধান শহরগুলোতে আতশবাজি দেখতে বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস নিয়ে সমবেত হয় অসংখ্য মানুষ।

নিউজিল্যান্ডের অকল্যান্ডে আকাশ আতশবাজির ঝলকানিতে আলোকিত হয়। নতুন বছরকে বরণ করতে সেখানার একটি টাওয়ারের বিশাল ঘড়িতে সময় দেখে রাত ১২টা বাজার জন্য অপেক্ষায় থাকে মানুষ। শুরু হয় কাউন্টডাউন। ১২টা বাজার সঙ্গে সঙ্গে আকাশে দেখা যায় আলোর বর্ণিল ছটা।

এর কয়েকঘণ্টা পর অস্ট্রেলিয়াতেও মানুষ একইভাবে নতুন বছরে পদার্পন করে।

বিশ্বজুড়ে আরো অনেক দেশে চলছে বর্ষবরণের বর্ণাঢ্য উৎসব। এশিয়া, ইউরোপ ও আমেরিকাজুড়ে বড় বড় শহরগুলোতে মানুষ উৎসবে মেতে উঠেছে।

পরবর্তী কয়েক ঘণ্টায় ধীরে ধীরে ২০১৭ সালকে বিদায় জানিয়ে ২০১৮ সালকে বরণ করে নেবে গোটা বিশ্ব। সবশেষে নতুন বছরকে বরণ করবে আমেরিকান সামোয়া দ্বীপ এবং যুক্তরাষ্ট্রের বেকার ও হাউল্যান্ড দ্বীপ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য