দিনাজপুর সংবাদাতাঃ তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ বিদুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মোহাম্মদ বলেছেন,সরকার দেশের মানুষের স্বার্থ বিরোধী রামপাল বিদুৎকেন্দ্র স্থাপন করে মানুষের অন্যায় ভাবে একদিকে ঋনের বোঝা চাপাচ্ছে অন্যদিকে প্রাকৃতিক ভুূস্বর্গ সুন্দরবনের ক্ষতি করছে।

তিনি বলেন, সরকার মসনদের জন্যে সাম্্রাজ্যবাদ ও পুজিবাদী গোষ্ঠিার স্বার্থ রক্ষার তাগিদে বিভিন্ন চুক্তি করে জনমানুষের কষ্টকে বাড়িয়ে তুলছে। অক্টোবর বিপ্লবের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে সমাজতান্ত্রিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় সোভিয়েত ইউনিয়ন মাত্র ২০ বছরে শিল্প উন্নত মার্কিনীদের ছাড়িয়েছিল।

আজ সকালে দিনাজপুর লোকভবনে অক্টোবর বিপ্লব শতবর্ষ উদযাপন পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি আলতাফ হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশ প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ বিদুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মোহাম্মদ।

এসময় সমাবেশে অন্যান্যের মাঝে আরো বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা কমরেড শুভ্রাংশু চক্রবর্তী,কমরেড সাজ্জাদ জহির চন্দন,কমরেড মোশাররফ হোসেন নান্নু,কমরেড এ্যাড জাহেদুল হক মিলু,কমরেড শওকত হোসেন আহমেদ।

সাম্্রাজবাদ ও পুজিবাদ বিরোধী শ্লোগান এবং সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় অক্টোবর বিপ্লবের চেতনায় উজ্জীবিত হওয়ার আহবান জানিয়ে সমাবেশের পূর্বে বিভিন্ন ব্যানার,ফেস্টুন,প্লেকার্ডসহ দলীয় নেতাকর্মীরা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষন করে লাল পতাকার মিছিল করে।

লোক ভবনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তৃতাকালে অধ্যাপক আনু মোহাম্দ বলেন,দেশের মানুষ আজ শিক্ষা,স্বাস্থ্যসহ গুম-খুন,লুটপাটের বিভৎসহ দুশ্চীন্তা নিয়ে দূর্বীসহ উদ্বেগ-উৎকুন্ঠার মাঝে জীবনযাপন করছে, কেউই আজ শান্তিতে নেই বললেই চলে।

তিনি ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রক্ষাপট উল্লেখ করে বলেন, তৎকালিন সোভিয়েত ইউনিয়েন যদি ভারতকে সহযোগীতা করার জন্যে না বলতো তাহলে আজ প্রেক্ষপট হতো ভিন্ন, আমরা হয়তো আজো পরাধীনতার শৃংখলে আবদ্ধই থাকতাম। শোষন ও শাসনের হাত থেকে উদ্ধার পেতে হলে সমাজতান্ত্রিক সমাজ প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন,সরকারী দলের নেতারা উন্নয়নের মহাকাব্য শোনান তবে কোথাও সাধারন মানুষের উন্নয়ন হয়নি। আমরা দেখছি নি¤œ আয়ের মানুষেরা ঋনের বোঝায় দিন দিন নুয়ে পড়ছে অথচ তারা বলছেন মানুষের উন্নতি হচ্ছে।

সমাবেশে স্থানীয় নেতাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,ইউনাইটেড কমিউনিষ্ট রীগের জেলা সম্পাদক আনোয়ার আলী সরকার,বাসদ(মার্কসবাদী) জেলা সম্বনয়ক রেজাউল ইসলাম সবুজ,বাসদ নেতা(মাহাবুব) সন্তোষ কুমার রায়,সারোয়ারুল হাসান ক্লিপটন ও কমিউনিস্ট পার্টিও সভাপতি এ্যাডঃ মেহেরুল ইসলাম প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য