জাতিসংঘের শিক্ষা, বৈজ্ঞানিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ইউনেস্কো থেকে নিজেদের প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছে ইসরায়েল। শুক্রবার এ বিষয়ে জাতিসংঘকে একটি নোটিশ দিয়েছে দেশটি।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, পূর্ব জেরুজালেমে দখলদারিত্বের সমালোচনা করায় কয়েক বছর ধরে ইউনেস্কোর সমালোচনা করে আসছে ইসরায়েল। এছাড়া ২০১১ সালে ফিলিস্তিনকে পূর্ণ সদস্য রাষ্ট্রের মর্যাদা দেওয়াতেও ইসরায়েল ক্ষুব্ধ ছিল ইউনেস্কোর ওপর।

ইউনেস্কো থেকে ইসরায়েলের বেরিয়া যাওয়ার সিদ্ধান্তে দুঃখপ্রকাশ করেছেন সংস্থাটির মহাপরিচালক অদ্রে আজৌলে। তিনি উল্লেখ করেন, ১৯৪৯ সাল থেকে ইউনেস্কোর সদস্য ইসরায়েল। জাতিসংঘের শিক্ষা, সংস্কৃতি ও বিজ্ঞান বিষয়ক সংস্থায় তাদের অধিকার রয়েছে।

ইসরায়েলের আগে ইউনেস্কো থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। ২০১৭ সালের অক্টোবরে উভয় দেশই নিজেদের প্রত্যাহারে জাতিসংঘকে আলাদা নোটিশ দেয়। যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছিল, তারা ইউনেস্কোতে স্থায়ী পর্যবেক্ষণ মিশন স্থাপন করবে। ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর চূড়ান্তভাবে তাদের সদস্যপদ বাতিল হবে।

প্রত্যাহারের ঘোষণা দেওয়ার সময় যুক্তরাষ্ট্র ইউনেস্কোকে ইসরায়েল বিরোধী বলে আখ্যায়িত করেছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য