বিদেশি পর্বতারোহীদের এখন থেকে গাইড ছাড়া মাউন্ট এভারেস্টে আরোহণ করতে দেওয়া হবে না।

পর্বতারোহীদের আরও অধিক সুরক্ষা দিতে নেপাল সরকার নতুন একটি আইন প্রণয়ন করেছে বলে শনিবার জানায় বিবিসি।

ওই আইন অনুযায়ী, বিদেশি পর্বতারোহীদের অবশ্যই সঙ্গে একজন গাইড নিতে হবে। যা নেপালি গাইডদের কর্মসংস্থানের সুযোগ বাড়াবে বলে আশা দেশটির পর্যটন কর্তৃপক্ষের।

নুতন আইনে অন্ধ এবং দুই পা নেই এমন ব্যক্তিদের পর্বতারোহণও নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলে বিবিসিকে জানান নেপালের পর্যটন বোর্ডের এক কর্মকর্তার ।

“দুর্ঘটনার হার কমাতেই নেপাল সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।”

এ বছর রেকর্ড সংখ্যক পর্বতারোহী বিশ্বের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্ট জয়ের চেষ্টা করেছে। যদিও পর্বতারোহণের সময় হতাহতের সংখ্যা অন্যান্য বছরে মতই ছিল।

এই মৌসুমে এখন পর্যন্ত ছয় পর্বতারোহীর মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বয়সে এভারেস্ট জয়ের রেকর্ডধারী নেপালের মিন বাহাদুর শেরচানও (৮৫) রয়েছেন।

২০০৮ সালে ৭৩ বছর বয়সে এভারেস্টের সর্বোচ্চ চূড়ায় উঠে রেকর্ড গড়েন মিন বাহাদুর। ওই রেকর্ড নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে তিনি এ বছর আবারও এভারেস্ট জয়ের চেষ্টা করেছিলেন।

‘সুইস মেশিন’ নামে পরিচিত সুইজারল্যান্ডের পর্বতারোহী উয়েলি স্টেকও (৪০) এ বছর ৩০ এপ্রিল একা এভারেস্টের চূড়ায় ওঠার সময় পড়ে গিয়ে মারা যান। কোনো অক্সিজেন সিলেন্ডার সঙ্গে না নিয়েই তিনি নতুন পথে এভারেস্ট জয়ের চেষ্টা করেছিলেন।

অন্ধদের পর্বতারোহণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নেপাল সরকারের সমালোচনা হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য