ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মিরে আধাসামরিক বাহিনী সিআরপিএফ ক্যাম্পে গেরিলা হামলায় দুই জওয়ান নিহত ও অপর দু জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত ওই জওয়ানদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ (রোববার) ভোরে পুলওয়ামা জেলার লেঠপোরায় সিআরপিএফ প্রশিক্ষণ শিবিরে কমপক্ষে দুই/তিন জন সশস্ত্র গেরিলা ওই আত্মঘাতী হামলা চালায়।

একটি সূত্রে প্রকাশ, গতকাল (শনিবার) দিবাগত রাত ২ টা নাগাদ সিআরপিএফ ক্যাম্পে হামলা হলে উভয়পক্ষের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধ’ শুরু হয়। পরিস্থিতি মোকাবিলায় ঘটনাস্থলে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীর ৫০ রাষ্ট্রীয় রাইফেলসের জওয়ানরা পৌঁছেছে।

গণমাধ্যমে প্রকাশ, গেরিলারা প্রথমে গ্রেনেড নিক্ষেপ করে এবং পরে এলোপাথাড়ি গুলিবর্ষণ করে। জৈশ-ই মুহাম্মদ গেরিলা গোষ্ঠী ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে।

জৈশ-ই মুহাম্মদ গেরিলা গোষ্ঠীর কমান্ডার নূর মুহাম্মদ নিহত হওয়ার বদলা নিতেই ওই হামলা চালানো হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। গত ২৬ ডিসেম্বর পুলওয়ামাতে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে তিনি নিহত হন।

কাশ্মিরে সম্প্রতি নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানে বেশকিছু গেরিলা নিহত হয়েছেন। এসব ঘটনায় আগে থেকেই সেখানে উচ্চসতর্কতা জারি করা হয়েছিল। কিন্তু তা সত্ত্বেও আত্মঘাতী গেরিলারা আধাসামরিক ক্যাম্পে হামলা চালিয়েছে। ওই ঘটনার পরে দক্ষিণ কাশ্মিরে ইন্টারনেট পরিসেবা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য