জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ সর্বসম্মতিক্রমে নতুন করে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে। পিয়ংইয়ং সর্বশেষ আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালানোর পর দেশটির বিরুদ্ধে এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলো।

শুক্রবার রাতে নিরাপত্তা পরিষদে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রস্তাব ১৫-০ ভোটে পাস হয়। এই নিষেধাজ্ঞার মাধ্যমে উত্তর কোরিয়ার পরিশোধিত তেল আমদানি শতকরা ৯০ ভাগ পর্যন্ত আটকে দেয়া হবে।

এখন থেকে উত্তর কোরিয়া সারা বছরে মাত্র পাঁচ লাখ ব্যারেল পরিশোধিত জ্বালানি আমদানি করতে পারবে। সেইসঙ্গে উত্তর কোরিয়ায় অপরিশোধিত তেল রপ্তানির ওপরও সীমাবদ্ধতা আরো করা হয়েছে। দেশটিতে এখন থেকে বছরে সর্বোচ্চ ৪০ লাখ ব্যারেল অপরিশোধিত তেল রপ্তানি করা যাবে।

আমেরিকার পক্ষ থেকে উত্থাপিত প্রস্তাবটিতে উত্তর কোরিয়ার বেশ কিছু পণ্য রপ্তানির ওপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। একইসঙ্গে প্রস্তাবে উত্তর কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এবং ১৫জন পদস্থ কর্মকর্তার বিদেশে থাকা সম্পদ বাজেয়াপ্ত করার কথাও বলা হয়েছে। এসব ব্যক্তির বিদেশ ভ্রমণের ওপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

গত ২৯ নভেম্বর উত্তর কোরিয়া তার সর্বশেষ আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালায়। পিয়ংইয়ং জানায়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ডের সব স্থানে এই ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে আঘাত হানা সম্ভব।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য