বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) সংবাদাতাঃ বীরগঞ্জে সিজার ডেলিভারীকে না-নরমাল ডেলিভারীকে হাঁ বলুন এই স্লোগান বাস্তবায়নের লক্ষে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একই দিনে ৩ নবজাতক মেহ্মানকে উপহার সামুগ্রী প্রদান করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের আয়োজনে রংপুর বিভাগিয় পরিচালক স্বাস্থ্য এর সংবর্ধনা, বার্ষিক বনভোজন ও পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠানের প্রাক্কালে প্রধান অতিথি হিসেবে রংপুর বিভাগিয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডাঃ মোঃ মোজাম্মেল হক সমাজ সেবা বিভাগের সহযোগিতায় ৩ নবজাতক মেহ্মানকে উপহার সামুগ্রী প্রদান করেন।

দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মওলা বক্স চৌধুরীর সভাপতিত্বে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ মোঃ জাহাঙ্গীর কবির সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ডিপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মাসুদুর রহমান, ডাঃ মোঃ নাজমুল ইসলাম (খানসামা), ডাঃ মোঃ আজমল হক (চিরিরবন্দর), উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার মোঃ জাকিরুল ইসলাম ও বীরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি ও প্রতিষ্ঠাতা মোঃ আবেদ আলী।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ডাঃ শাহ্ আলম, সমাজ সেবা অফিসার মোঃ সারোয়ার মুর্শিদ আহাম্মদ, আবাশিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মাহমুদুল হাসান পলাশ, ডাঃ তাহমিনা ফেরদৌস, ডাঃ আফরোজা সুলতানা, ডাঃ ইরফাতী অক্তার, ডাঃ মাধবী রানী দাস, সাংবাদিক মোঃ মোশাররফ হোসেন, নাজমুল ইসলাম মিলন, আব্দুল জলিল আহাম্মেদ, মোঃ নিহাল হোসেন ও অন্যরা।

প্রধান অতিথি রংপুর বিভাগিয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডাঃ মোঃ মোজাম্মেল হক বলেন, সিজার ডেলিভারীকে না ও নরমাল ডেলিভারীকে হাঁ বলুন এই স্লোগান বাস্তবায়নে রংপুর বিভাগের প্রতিটি জেলা ও উপজেলা কর্মকর্তাদের অনুকরন করার জন্য র্নিদেশ দেওয়া হয়েছে। সিভিল সার্জন ডাঃ মওলা বক্স চৌধুরী বলেন, আমি নিজেই এবং দেশের প্রতিটি জেলার । সিভিল সার্জনের অংশ গ্রহনে ঢাকায় একটি প্রশিক্ষনে গিয়েছিলাম সেখানে অধিকাংশ সময়ে বীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নরমাল ডেলিভারী নিয়ে কথা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ মোঃ জাহাঙ্গীর কবির বলেন, ইতিমধ্যে জেলা-বিভাগ ও মন্ত্রনালয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কাজে খুশি হয়ে থ্যাংস লেটার দিয়ে কর্মরত সংশ্লিষ্ট সকলের কাজের আগ্রহ শতগুন বৃদ্ধি করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কার্যালয় থেকে ফোন করা হয় এবং বীরগঞ্জকে মডেল করে কি ভাবে সারা দেশে সিজার ডেলিভারীকে না ও নরমাল ডেলিভারীকে হাঁ বলুন বাস্তবায়নের জন্য সারা দেশে ছড়িয়ে দেওয়া যায় সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কাজের উদ্যোগতাদের ডাকা হতে পারে সে বিষয়ে প্রস্তুত থাকার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সর্বপরি রংপুর বিভাগিয় পরিচালক ডাঃ মোঃ মোজাম্মেল হক (স্বাস্থ্য), তার স্ত্রী-কন্যা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ মোঃ জাহাঙ্গীর কবির তার মা-স্ত্রী, শশুর-শাশুরীসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স বিভাগের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে নিয়ে এক কাতারে বসে বন-ভোজনের মধ্যান্য ভোজে অংশ গ্রহন করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য