আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট থেকে: লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার শ্রীরামপুর সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) নির্যাতনে এক বাংলাদেশি যুবক নিহত হয়েছেন। তাঁর নাম রশিদুল ইসলাম (৩০)। বুধবার (২০ ডিসেম্বর) ভোরে উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের মাষ্টারেরবাড়ী সীমান্তে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।

নিহত রশিদুল ইসলাম পাটগ্রাম উপজেলার জোংড়া ইউনিয়নের মোমিনপুর (কবরস্থান) এলাকার মৃত তছলিম উদ্দিনের ছেলে। বিএসএফের বর্বর নির্যাতনের শিকার ওই বাংলাদেশিকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

বিজিবি ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, বুধবার ভোরে রশিদুলসহ কয়েকজন বাংলাদেশি ভারতীয় ব্যবসায়ীদের সহযোগিতায় গরু আনতে ওই সীমান্তের ৮৪৩ নম্বর মেইন পিলারের ০৩ নম্বর সাব পিলার এলাকায় যায়। এসময় টহলরত বিএসএফ ধাওয়া করে রশিদুলকে আটক করলে অন্যরা পালিয়ে আসে। পরে রশিদুলের উপর র্ববর নির্যাতন চলে বিএসএফের।

একপর্যায়ে তাকে মৃত ভেবে ঘটনাস্থল থেকে চলে যায় বিএসএফ। কিছুক্ষণ পর ঘটনাস্থলের অদূরে উৎ পেতে থাকা অন্যান্য সঙ্গীরা রশিদুলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। নিহত রশিদুলের অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে পরিবার সুত্রে জানা গেছে। পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনি শংকর কর বলেন, নিহত রশিদুল ইসলাম সীমান্তে গরু আনতে গিয়ে মারধরের শিকার হয়ে হাসপাতাল যাওয়ার পথে মারা যায়।

রংপুর-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মেজর মুনীরুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, বিএসএফের নির্যাতনে রশিদুল ইসলাম নিহত হয়েছেন কি না? তা খতিয়ে দেখছে বিজিবি। এ ব্যাপারে পতাকা বৈঠকের আহবান জানিয়ে ইতোমধ্যে বিএসএফকে চিঠি দেয়া হয়েছে ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য