আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট থেকে: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই শিশু শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পারভেজ হোসেন (১০) ও পরশ (৬) নামে দুই শিশু শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে জখম অভিযোগ উঠেছে। এ সময় তাদের বাঁচাতে গিয়ে তাদের মা শাহনাজ পারভিন (৩০) কেও মারধর করা হয়।

বর্তমানে তারা হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।বিকেলে উপজেলার দক্ষিণ গড্ডিমারী গ্রামে পল্লী শ্রী মাদ্রাসার পাশে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার সকালে ওই দুই শিশুর বাবা সৈয়দ আলী তিন জনের নাম উল্লেখ করে হাতীবান্ধা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযুক্তরা হলেন, উপজেলার একই গ্রামের মজিবর রহমানের পুত্র তবিবর রহমান(৪০), তবিবরের স্ত্রী রুপালী বেগম(৩০),ও তার ভাই মহবুর রহমানের স্ত্রী পারভিন বেগম(২০)। মামলার অভিযোগে উল্লেখ আছে যে, সোমবার বিকেলে উপজেলার দক্ষিণ গড্ডিমারী গ্রামের পল্লীশ্রী মাদ্রাসার পাশে সৈয়দ আলীর পুত্র ও তবিবর রহমানের পুত্রের ঝগড়া হয়।

এই সময় তবিবর রহমান একটি লাঠি নিয়ে পারভেজ ও পরশকে বেধড়ক মারপিট করে। এতে তাদের মুখে, পিঠে ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখম হয়। এছাড়া ওই দুই শিশুর মা তাদের বাঁচাতে গেলে তাকেও মারধর করা হয়।

এ বিষয়ে ওই দুই শিশুর বাবা সৈয়দ আলী জানান, আমি থানায় অভিযোগ করেছি। আইনে যা হবে তাই আমি মেনে নেব।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত তবিবর রহমান জানান, বাচ্চা-বাচ্চা ঝগড়া লেগে মারামারি করেছে। আমরা কাউকে মারি নি। তবে এ বিষয়ে স্থানীয়ভাবে বসে মিমাংসা করা হবে। এ বিষয়ে হাতীবান্ধা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামীম হাসান সরদার জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য