জাকিয়া বারী মম অভিনয় জীবনের শুরুতেই তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ‘দারুচিনি দ্বীপ’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে অর্জন করেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। কিন্তু তখন এই পুরস্কারপ্রাপ্তির আনন্দটা দারুণভাবে উপভোগ করতে পারেননি তিনি।

কারণ তখন বয়স ছিল কম। এখন বয়স বেড়েছে। পুরস্কারের মর্যাদাও উপলব্ধি করেন হৃদয় দিয়ে। তাই মমর প্রত্যাশা যেন এখন কোনো চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তিনি এই সম্মাননা অর্জন করতে পারেন।

সেই প্রত্যাশায় ভালো কিছু চলচ্চিত্রে কাজও করছেন তিনি। চ্যালেঞ্জিং চরিত্রের গভীরে প্রবেশ করে অভিনয় করছেন আপন মনে। ঠিক তেমনি একটি চরিত্র আলতা। অরুণ চৌধুরী পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র ‘আলতাবানু’তে নাম ভূমিকায় অভিনয় করছেন তিনি। পাশাপাশি তিনি শেষ করেছেন তানিম রহমান অংশুর ‘স্বপ্নবাড়ি’ চলচ্চিত্রের কাজ।

দুটি চলচ্চিতেই তার বিপরীতে আছেন আনিসুর রহমান মিলন। মম বলেন, দুটি চলচ্চিত্রেই আমি চেষ্টা করেছি আমার চরিত্র যথাযথভাবে ফুটিয়ে তুলতে। এদিকে জাকিয়া বারী মমর আজ জন্মদিন। দিনটি নিয়ে কোনো পরিকল্পনা না থাকলেও আজ সকালেই তিনি চলে যাবেন তার মায়ের কাছে। রাজধানীর এ্যালিফেন্ট রোডে জাকিয়া বারী মমর মা থাকেন।

সেখানেই তিনি সকাল থেকে যতটা সময় মন চায় মায়ের সঙ্গে কাটাবেন। মম বলেন, আমার জন্মদিনটি আমার কাছেই শুধু বিশেষ দিন নয়, আমার মায়ের জন্যও এটি বিশেষ দিন। কারণ, আমাকে জন্ম দেয়ার মধ্যদিয়েই তিনি প্রথম মা হয়েছেন। তাই মায়ের সেই আনন্দের দিনে আমি তার পাশে থাকতে চাই।

এরপর আর কী করবো তা নিয়ে কোনো পরিকল্পনা করিনি আমি। তবে তার অজান্তেই জন্মদিনকে ঘিরে অনেক কিছুই হয়ে যেতে পারে। নানান ধরনের সারপ্রাইজের মধ্য দিয়েও কাটতে পারে দিনটি এমন সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিতে পারছেন না মম।

জন্মদিন প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, আল্লাহর কাছে অসীম কৃতজ্ঞ তিনি আমাকে সুন্দর একটি জীবন দিয়েছেন। আমার বাবা-মায়ের প্রতি কৃতজ্ঞ, তাদের কারণে আমার এই পৃথিবীর আলোর মুখ দেখা। আমার বাবা-মাকে যেন আল্লাহ সুস্থ রাখেন, ভালো রাখেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য