সৈয়দপুরে দলিত ও আদিবাসীদের জীবনযাত্রার মানোন্নয়নে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি, সাংবাদিক ও সুধীজনদের নিয়ে গ্রাম বিকাশ কেন্দ্র আলো প্রকল্পের মতবিনিময়। গতকাল কামারপুকুর ইউনিয়নের মানাবিক সাহায্য সংস্থার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন সৈয়দপুর বণিক সমিতির সভাপতি মো. ইদ্রিস আলী। ওই সভায় বক্তব্য বলেন, সাংবাদিক ওবায়দুল ইসলাম, বদরুদ্দোজা বুলু, গ্রাম বিকাশ কেন্দ্র আলো প্রকল্পের মার্কেট ডেভলপমেন্ট ম্যানেজার ডাঃ মো. জিয়াউর রহমান, প্রকল্প কর্মকর্তা সাজ্জাদ হোসেন, টেকনিক্যাল কর্মকর্তা অ্যাডভোকেসি নূরে আলম সিদ্দিকী, মার্কেট ডেভলপমেন্ট কর্মকর্তা রাজিব কুমার রায়, উপজেলা ম্যানেজার নাদিয়া আক্তার, সিডিএফ রবিউল ইসলাম ও গোপাল চন্দ্র রায়সহ অনেকে।

এ সময় আলো প্রকল্পের কর্মকর্তারা বলেন, হেক্স ইন্টারন্যাশনাল ও ইপার সুইজারল্যান্ডের সহযোগিতায় আমরা দলিত ও আদিবাসীদের জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন, শিক্ষা, কর্মসংস্থান, কারিগরি প্রশিক্ষণ, গবাদিপশু পালনসহ বিভিন্ন বিষয়ে তাদের দক্ষ করে তোলা হচ্ছে। ইতোমধ্যে আমরা তাদের ৩০ জন ছেলেকে বিভিন্ন কারিগরি প্রতিষ্ঠানে ভর্তি করেছি।

বর্তমানে আমরা তাদের অধিকার আদায়ে ভূমি আইন ও ভূমির ওপর তাদের অধিকার নিশ্চিতকরণ বিষয়ে সচেতন করে তুলছি। হোটেল, সেলুন, ধর্মীয় স্থানে তাদের প্রবেশের অধিকার ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি। ২০১৬ সালে ১২জন ছেলেকে সম্পূর্ণ ব্যয় বহন করে তাদের এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ করে দিয়েছি। তারা ভালো ফলাফল নিয়ে সকলেই পাশ করেছে।

২০১৭ সালের জানুয়ারি মাস থেকে সহযোগিতা করে আসছি। এটি অব্যাহত থাকবে ২০২০ সাল পর্যন্ত। ৪ বছর মেয়াদে তাদের বিভিন্ন বিষয়ে আমরা সহযোগিতা করে যাবো। বর্তমানে বোতলাগাড়ী ও সৈয়দপুর পৌরসভার ৭টি গ্রামে দলিত ও আদিবাসীদের হয়ে কাজ করছি। ২০১৩ সাল থেকে আলো প্রকল্প এ কর্মসূচি শুরু করে। আগামি ২০২০ সাল পর্যন্ত আমরা কাজ করবো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য