ফুলবাড়ীঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে আজ বৃহস্পতিবার শহীদ বুদ্ধিজিবী দিবস উপলক্ষে, উপজেলা প্রসাশনের উদ্যোগে শোক র‌্যালী ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শহীদ বুদ্ধিজিবী দিবস উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৯ টায়, উপজেলা চত্তর থেকে একটি শোক র‌্যালী বের হয়, র‌্যালীটি পৌর শহর প্রদক্ষিন করে পুনরায় উপজেলা চত্তরে এসে শেষ হয়। শোক র‌্যারী শেষে, উপজেলা চত্তরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুস সালাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে, বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হায়দার আরী শাহ, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এটিএম হামিম আশরাফ, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোছাঃ হাসিনা ভূঁইয়া, মুক্তি যোদ্ধা সংসদের সাবেক ডিপুটি কমান্ডার এছার উদ্দিন প্রমুখ।

দিনাজপুর সদরঃ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস-২০১৭ উপলক্ষে দিনাজপুর সরকারি কলেজে কালোব্যাচ ধারন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।১৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে কলেজের সকল শিক্ষক-শিক্ষিকাগণ কালোব্যাচ ধারন করেন। পরে কলেজের জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটির আয়োজনে শিক্ষক বিরামাগারে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর সৈয়দ মোহাম্মদ হোসেন।

জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটির আহবায়ক প্রফেসর আব্দুল জলিল আহমেদ এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কলেজের শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এ কে এম আল আব্দুল্লাহ। শহীদের রক্ত বৃথা যায় না, এমন বক্তব্যের যুক্তি তুলে ধরে আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, ‘শহীদদের পথ ছিল সত্য ও সুন্দরের। সত্য ও সুন্দরের পথকে কেউ সাময়িকভাবে বাধাগ্রস্থ করতে পারে কিন্তু চিরতরে রুখে দিতে পারে না। যারা যুদ্ধাপরাধ করেছে এবং যুদ্ধাপরাধীদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে এ দেশে প্রতিষ্ঠিত করেছে, তারা সমান অপরাধী। পাশাপাশি যারা তাদের হাতে লাখো শহীদের রক্তে রঞ্জিত পতাকা দিয়েছে, তারাও সমান অপরাধী।এছাড়াও আলোচনা সভায় অন্যন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দর্শন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এনামুল হক, ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর ইছাহাকক আলী, গণিত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক তৌহিদুল ইসলাম, দর্শন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আল ফুয়াদ প্রমুখ। আলোচনা সভাটি সঞ্চালনা করেন কলেজের বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আল হেলাল।

চিরিরবন্দরঃ চিরিরবন্দরে ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবি দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় উপজেলা সম্মেলন কক্ষে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ গোলঅম রব্বানী। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ¦ আয়ুবর রহমান শাহ, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ মনজুরুল হক, থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ মোঃ হারেসুল ইসলাম, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ আজমল হক, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রেজাউল ইসলাম, প্রেসক্লাবের সম্পাদক মোরশেদ উল আলম, আওয়ামী লীগ নেতা মোজাম্মেল হক রোমান প্রমূখ বক্তব্য রাখেন। দোয়া পরিচালনা করেন অধ্যক্ষ আলহাজ¦ মৌলানা একরামুল হক।

কাহারোলঃ দিনাজপুরের কাহারোলে বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা হল রুমে শহীদ বুদ্ধিজীবি দিবস ২০১৭ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন, কাহারোল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নাসিম আহমেদ। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, কাহারোল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মামুনুর রশীদ চৌধুরী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আবদুল মালেক সরকার, বাংলাদেশ আ.লীগ কাহারোল উপজেলা শাখার সভাপতি এ,কে,এম ফারুক, কাহারোল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডা. মোঃ আরোজ উল্লাহ, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ শামীম, প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. তারিক, শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আফজাল হোসেন, বন কর্মকর্তা মোঃ হেলাল উদ্দীন, সমাজ সেবা কর্মকর্তা মোঃ রুস্তম আলী মন্ডল, মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আবদুস সালাম, কাহারোল প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ জিয়াউর রহমান প্রমুখ।

হাবিপ্রবি, দিনাজপুরঃ বুধবার হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস-২০১৭ পালিত হয়েছে। সকালে কালোব্যাচ ধারন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মু আবুল কাসেম-এর শহীদ মিনার বেদীতে পুষ্পমাল্য অর্পনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখার নেতৃবৃন্দ, কর্মচারি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সংগঠন পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শহীদ বৃদ্ধিজীবীদের উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধা জানান। শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের তাৎপর্যের উপর ভিত্তি করে বাণী প্রদান করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মু আবুল কাসেম। তিনি তাঁর বাণীতে বলেন আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের পটভূমি তৈরিতে শহীদ বুদ্ধিজীবীগণ তাঁদের মেধা ও মনন দিয়ে এক গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা পালন করেছেন। ১৯৭১ সালের ৭ মার্চে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহবানে সাড়া দিয়ে দেশের অপামর জনসাধারনসহ বুদ্ধিজীবীরাও মহান স্বাধীনতা সংগ্রামকে বেগবান করেছিলেন। যা পাকিস্তানি ও তাদের এদেশীয় দোসররা মোটেই ভালভাবে গ্রহণ করেনি। ফলে, পরাজয়ের প্রতিহিংসা আগাম চরিতার্থ করতেই তারা বেছে নিয়েছিল ওই নৃশংস হত্যাকান্ড। পাকিস্তানের সামরিক জান্তা পরাজয়ের আগমুহুর্তে পরিকল্পিতভাবে বেছে বেছে হত্যা করেছিল জাতির অগ্রণী শিক্ষক, লেখক, শিল্পী, সাহিত্যিক, সাংবাদিক ও চিকিৎসকদের। তারা চেয়েছিল সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশ যেন মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে না পারে। তিনি তাঁর বাণীতে আরও বলেন, ইতিহাসের এই বর্বর হত্যাকান্ডে সমগ্র জাতির সাথে হাবিপ্রবি পরিবারও গভীর শোকাভিভূত। তিনি বেদনাবিধুর দিনে গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন দেশের জন্য আত্মবিসর্জনকারী সকল শহীদ বুদ্ধিজীবীকে। উক্ত অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

বঙ্গবন্ধু পরিষদের দিনাজপুরঃ বঙ্গবন্ধু পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখা আয়োজিত ১৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতাল হলরুমে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করে। বঙ্গবন্ধু পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডাঃ আহাদ আলী’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক ভিসি প্রফেসর মোঃ রুহুল আমিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মোঃ শফিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হাবিপ্রবি’র প্রফেসর ড. বলরাম রায়, প্রবীন রাজনীতিবিদ আবুল কালাম আজাদ, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফারুকুজ্জামান চৌধুরী মাইকেল, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মাসুদ রেজা খান, হাবিপ্রবি’র সাইদুর রহমান। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন শিরিন আক্তার পারভীন, ডাঃ মুঃ শহিদুল্লাহ, মোঃ হুমায়ুন কবীর মান্নান, মোছাঃ সিদ্দিকা বেগম, মোঃ আজগার আলী, সাদে আখতার, আউয়াল বকস, মোঃ মোকাররম হোসেন, শহিদুল ইসলাম সহিদুল্লাহ, মোজাফ্ফর হোসেন, প্রফেসর নাজিম অগ্রণী ব্যাংকের সাবেক সভাপতি শংকর দাস, নুর ছাবা ও বঙ্গবন্ধু পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ নুর ইসলাম। বক্তারা বলেন, অবিলম্বে বুদ্ধিজীবী দিবসকে জাতীয় দিবস, জাতীয় জয় বাংলা শ্লোগানকে জাতীয় শ্লোগান ও ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর ভাষনকে জাতীয় দিবস হিসেবে ঘোষনা করতে হবে। পশ্চিমা শাসক গোষ্ঠী এ দেশকে শাসন করেছে, শোষন করেছে আমাদের। তারা বুদ্ধিজীবী শূণ্য দেশ করার ষড়যন্ত্রে বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করেছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এ দেশ স্বাধীন করেছে মহান বুদ্ধিবুদ্ধের মাধ্যমে। আমাদের প্রজন্মদের স্বাধীনতা যুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস জানাতে হবে। মনে রাখবেন জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাসবাদ ও সাম্প্রদায়ীক রাজনীতির জীবানু বিএনপি’র এদেশে এনেছে।

দিনাজপুর জেলা যুব মহিলা লীগঃ বাংলাদেশ যুব মহিলালীগ দিনাজপুর জেলা শাখার উদ্যোগে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন। ১৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে দিনাজপুর জেলা যুব মহিলা লীগ এর সভাপতি ছবি সিনহা ও সাধারণ সম্পাদক মাসুদা বেগম মুক্তা এর নেতৃত্বে সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ জেলা প্রশাসন চত্বরে শহীদ স্মৃতি স্তম্ভে মোমবাতী প্রজ্জ্বলন কর্মসূচী পালন করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা যুব মহিলা লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আন্না অধিকারী, সহ-সভাপতি জাকিয়া তাবাসসুম জুঁই, সাংগঠনিক সম্পাদক তাজমুন নাহার ছন্দা, কোতয়ালী যুব মহিলা লীগের সভাপতি রুখসানা পারভীন, সাধারণ সম্পাদক সাবিনা ইয়াসমিন, শহর যুব মহিলা লীগের আহবায়ক মলিভিয়া পারভীন, যুগ্ম আহবায়ক তিথি দে, বাবলি আক্তার পিংকি, জেলা যুব মহিলা লীগ নেত্রী গৌরি, লহ্মি লাবনী, বৃষ্টি, রুনা, রুশি, রুমা, মাসুদা প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য