ফিলিস্তিনের স্বশাসিত সরকারের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের সঙ্গে আসন্ন পূর্বনির্ধারিত বৈঠক বর্জন করবেন বলে ঘোষণা করেছেন।

স্বশাসিত সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ আল-মালিকি এ ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষ থেকে জেরুজালেম শহরকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার প্রতিবাদে মাহমুদ আব্বাস এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আগামী ১৯ ডিসেম্বর মাইক পেন্সের ইহুদিবাদী ইসরাইল ও জর্দান নদীর পশ্চিম তীর সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে। রিয়াদ আল-মালিকি বলেন, এ সফরে মার্কিন প্রতিনিধিদলের সঙ্গে ফিলিস্তিনি স্বশাসিত সরকারের কোনো ধরনের সম্পর্ক স্থাপিত হবে না।

এদিকে মিশরের কপটিক খ্রিস্টানদের সর্বোচ্চ ধর্মগুরু পোপ দ্বিতীয় ট্যাওয়াড্রোসের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে, তিনি চলতি মাসের শেষের দিকে কায়রোয় মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট পেন্সের সঙ্গে পূর্ব নির্ধারিত সাক্ষাৎ বাতিল করেছেন।

মিশরের আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যান্ড মুফতি আহমাদ আল-খতিবও ট্রাম্পের ঘোষণার প্রতিবাদে মাইক পেন্সের সঙ্গে পরিকল্পিত বৈঠক বাতিল করেছেন। আগামী ২০ ডিসেম্বর কায়রোয় মাইক পেন্সের সঙ্গে সঙ্গে আহমাদ আল-খতিবের বৈঠক হওয়ার কথা ছিল।

মুসলমানদের প্রথম ক্বেবলার শহর আল-কুদস বা জেরুজালেমকে মুসলমানরা নিজেদের তৃতীয় পবিত্রতম শহর বলে মনে করেন। এ কারণে মুসলমানদের কাছে ফিলিস্তিনের অবিচ্ছেদ্য অংশ এই শহরের গুরুত্ব অপরিসীম এবং তারা ট্রাম্পের ঘোষণার পর থেকেই এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন।

১৯৬৭ সালের যুদ্ধে ইহুদিবাদী ইসরাইল জেরুজালেম শহরের পূর্ব অংশ দখল করে নেয় এবং ওই অংশেই মুসলমানদের প্রথম ক্বেবলা আল-আকসা মসজিদ অবস্থিত।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য