09_Ambassador  indiaদুদেশের মধ্যে সম্পর্কে চিড় ধরানো কূটনৈতিক বিরোধের মধ্যে ভারতে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত ন্যান্সি জে পাওয়েল পদত্যাগ করেছেন। তিনি প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন বলে সোমবার দূতাবাসের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিকে উদ্ধৃত করে ভারতের সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, ৩৭ বছরের দীর্ঘ কর্মজীবনের ইতি টেনে মে মাসের শেষের দিকে যুক্তরাষ্ট্রের ডেলওয়ারে নিজ বাড়িতে ফেরার পরিকল্পনা রয়েছে পাওয়ালের। এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ভারতীয় গণমাধ্যমে সপ্তাহখানেক আগেও কানাঘুষা চলছিল যে পাওয়েলকে সরিয়ে রাজনৈতিক নিয়োগ দিতে যাচ্ছে ওবামা প্রশাসন। গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ও লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করতে সময়ক্ষেপণ করেছিলেন এবং ইউপিএরপররাষ্ট্র নীতির সঙ্গে ‘ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক’ পাওয়েলের বিপক্ষে গেছে কূটনৈতিক সূত্রের খবর। তবে যুক্তরাষ্ট্র মোদির সঙ্গে সম্পর্ক উষ্ণ করতে উদ্যোগ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিলে গত ১৩ ফেব্র“য়ারি তার সঙ্গে দেখা করেন পাওয়েল, যার মধ্য দিয়ে এই বিজেপি নেতার ওপর আরোপিত নয় বছরের নিষেধাজ্ঞ র সমাপ্তি ঘটল। ২০০২ সালের গুজরাট দাঙ্গার ঘটনার জের ধরে ২০০৫ সালে মোদির ভিসা বাতিল করে যুক্তরাষ্ট্র। যখন ভারত নির্বাচনী প্রক্রিয়ার মধ্যে রয়েছে এবং এর ফলাফল নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র অত্যন্ত আগ্রহী তখন ৬৭ বছর বয়সী এই কূটনীতিক কেন পদত্যাগ করলেন সেবিষয়ে দূতাবাসের কোনো সূত্র মুখ খুলতে চাননি।
হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ভারতীয় কূটনীতিক দেবযানী খোবরাগাড়ের ঘটনা প্রতীকারে এবং নরেন্দ্র মোদির ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞ প্রত্যাহারে আরো উদ্যোগী ভূমিকা পালন না করায় যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত- উভয় দেশের কর্মকর্তাদের মধ্যে পাওয়ালকে নিয়ে সমালোচনা রয়েছে। কূটনৈতিক সূত্রের বরাতে তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়, খোবরাগাড়ের গ্রেপ্তারের ঘটনাটাই পাওয়েলের জন্য কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ এই ঘটনার পরবর্তী দ্বন্দ্বের বিষয়ে তিনি ওবামা প্রশাসনকে সতর্ক করতে ব্যর্থ হয়েছেন। পাওয়েল ভারতের আগে উগান্ডা, ঘানা, পাকিস্তান, নেপাল, ভারত, কানাডা, টগো, বাংলাদেশে দায়িত্ব পালন করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য