দিনাজপুরের বীরগঞ্জ পৌর ভবনে দুধর্ষ চুরি সংগঠিত হয়েছে। অজ্ঞাত চোরেরা হিসাব শাখা কক্ষের জানালার গ্রীল কেটে ষ্টীল আলমারী ভেঙ্গে ১লক্ষ ১হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছে বলে জানিয়েছে পৌর সভার ভারপ্রাপ্ত সহকারী হিসাব রক্ষক মোঃ ওয়াজেদ আলী।

তিনি জানান, মেয়র কাউন্সিলরদের সন্মানি ভাতা বাবদ সোমবার ব্যাংক হতে ১লক্ষ ৩৮হাজার টাকা তোলা হয়। ৪জন কাউন্সিলকে সন্মানি ভাতা বাবদ ৩৬হাজার টাকা প্রদান করা হয়। ১হাজার টাকা নিজ হাতে রেখে ১লক্ষ ১হাজার টাকা ষ্টীল আলমারীতে রেখে আসি। মঙ্গলবার সকালে অফিসে গিয়ে চুরির বিষয়টি জানতে পারি।

পৌর সভার সচিব সরদার আবু হানিফ জানান, সকালে পরিচন্নতাকর্মীরা কক্ষ পরিস্কার করার সময় হিসাব শাখা ৪নং কক্ষের ভিতর হতে দরজা বন্ধ দেখতে পায়। পরে অফিসে উপস্থিত কর্মকর্তা কর্মচারীদের বিষয়টি অবহিত করলে অফিসের লোকজন দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে। কক্ষে প্রবেশ করার পর জানালার গ্রীল কাটা এবং ষ্টীল আলমারী ভাঙ্গা এবং আসবাবপত্র এলোমেলো ভাবে মেঝেতে ছড়িয়ে রয়েছে দেখতে পায়। পরে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করা হয়। ঘটনার পর সিসি ক্যামেরা বন্ধ দেখতে পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে লিখিত ভাবে অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

পৌর সভার নৈশ্য প্রহরী মোঃ আবু সুফিয়ান জানান, সোমবার গভীর রাত পর্যন্ত জেগে ছিলাম। মঙ্গলবার ভোরের দিকে পাশে একটি কক্ষে বিশ্রাম নেই। সকালে চুরির বিষয়টি নজরে আসে। কি ভাবে এ ঘটনা ঘটল বুঝতে পারছি না। চোরেরা পূর্ব থেকে চুরির প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে বলে ধারণা হচ্ছে।

বীরগঞ্জ থানার এসআই মোঃ মশিউর রহমান চুরির বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বিষয়টি মৌখিক ভাবে অবহিত করার পর তাৎক্ষণিক ভাবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়। সে সময়ে কি কারণে সিসি ক্যামেরা বন্ধ ছিল সব বিষয়গুলি পুলিশ খতিয়ে দেখছে। লিখিত ভাবে অভিযোগ পাওয়ার পর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য