মোঃ জাকির হোসেন সৈয়দপুর থেকেঃ নীলফামারীর সৈয়দপুরে (৪ডিসেম্বর) সোমবার সকাল ১১টা থেকে ২ ঘন্টা ব্যাপি সড়ক অবরোধ করেছে মটর শ্রমিক ইউনিয়নের শ্রমিকরা।

জানা যায়, নীলফামারী থেকে একটি মুনমুন মিনিবাস সৈয়দপুরে আসার সময় সামনে থাকা সেনাবাহিনীর একটি গাড়ীকে সাইড দেওয়ার জন্য বার বার হর্ণ দেয় । এতে সেনা সদস্যরা গাড়ী থাকিয়ে চালক মোক্তার (৩৪) ও হেলপার রাজা (২৫) কে শারারিক ভাবে লাঞ্চিত করা হয়।

এলাকাবাসী উদ্ধার করে চালক ও হেলপারকে স্থানীয় ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এই খবর সৈয়দপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে পৌছালে মটর শ্রমিকরা উৎজিত হয়ে ২ ঘন্টা সড়ক অবরোধ করে ।

এসময় সব ধরনের যানচলাল বন্ধ হয়ে যায়। এসময় পরস্থিতি শান্ত করতে কেন্দ্রী বাসটার্মিনালে উপস্থিত হন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বজলুর রশিদ, নীলফামারী জেলা বাস-বাসমিনি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আখতার হোসেন বাদল,সৈয়দপুর থানার তদন্ত ওসি তাজ উদ্দিন অন্যন নেতৃবৃন্দ আশ্বাসে সড়ক অবরোধ তুলে নেওয়া হয়।

আহত চালক,মোক্তার জানান, আমি নীলফামারী থেকে গাড়ী নিয়ে সৈয়দপুরে দিকে আসছিলাম।

দারোয়ানী ট্রেক্সটাইল মিল থেকে সেনাবাহিনী একটি জিফ গাড়ীর বের হয়। আমার সময়ের গাড়ী হওয়ায় কারনে হর্ণ বাজিয়ে সাইড দেওয়ার জন্য। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে ঢেলাপীর হাট ইকুজুট মিলের সামনে বাস থেকে নামিয়ে আমাকে প্রথমে চর মারে। পরে লাঠি দিয়ে আমাকে ও হেলপার কে মারধর করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য