সৌদি আরবের সঙ্গে মিলে দারিদ্রপীড়িত ইয়েমেনে বর্বর সামরিক আগ্রাসন চালানোর জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত বা আইসিসি-তে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আরব অর্গানাইজেশন ফর হিউম্যান রাইটস নামে ব্রিটেনভিত্তিক একটি মানবাধিকার সংস্থা এ মামলা দায়ের করেছে। মামলার আর্জিতে বলা হয়েছে- ইয়েমেনের বেসামরিক নাগরিকদের ওপর নির্বিচারে হামলা চালিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাহিনী।

এছাড়া, আমিরাতের বিমান বাহিনী ইয়েমেনের ওপর নিষিদ্ধ ঘোষিত গুচ্ছ বোমা ব্যবহার করেছে। পাশাপাশি ইয়েমেনের জনগণকে হত্যা ও নির্যাতনের জন্য বাইরে থেকে লোকজন ভাড়া করেছে।
সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ইয়েমেনি শিশুদের বিক্ষোভ

তবে যে রোম ঘোষণার ভিত্তিতে আইসিসি গঠিত সেই ঘোষণায় ইয়েমেন কিংবা সংযুক্ত আরব আমিরাত কেউই সই করে নি। ফলে আইসিসিতে মামলা হলেও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া যাবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে।

বরং আমিরাতের হয়ে যদি বাইরের দেশের কোনো নাগরিক ইয়েমেনের লোকজনকে হত্যা ও নির্যাতনে জড়িত থাকে তাহলে তাদের বিচার করা সম্ভব হবে। এ কারণে মামলার বিষয়ে কোনো তদন্ত কার্যক্রম শুরু করা হবে কি না তা এখন আদালতের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী জোসেফ ব্রেহাম জানান, ইয়েমেনের নাগরিকদের হত্যা ও নির্যাতনের ক্ষেত্রে কলম্বিয়া, পানামা, এল সালভেদর, দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার ভাড়াটে লোকজন নিয়োগ দিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। সে কারণে এ মামলার তদন্ত শুরু হওয়া উচিত এবং দোষীদেরকে বিচারের আওতায় আনা দরকার।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য