দিনাজপুর সংবাদাতাঃ বন্ধ হতে চলেছে দিনাজপুরের গুরুত্বপূর্ণ হিলি রেলষ্টেশনের কার্যক্রম। প্রতিদিন এই রেলপথ দিয়ে দেশের বিভিন্নস্থানে আন্তনগরসহ ৯টি ট্রেন চলাচল করলেও থামে মাত্র ৩টি ট্রেন।

বৃট্রিশ আমলে নির্মিত হিলি রেলষ্টেশন থেকে দিন-দিন রাজস্ব আয় বৃদ্ধি পেলেও লাগেনি কোনো উন্নয়নের ছোঁয়া। নেই কোনো যাত্রী ছাউনি, বিশ্রামাগার, টয়লেটসহ বিশুদ্ধ পানীয়-জলের ব্যবস্থা। দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম হিলি স্থলবন্দর এখানে প্রতিষ্ঠা হলেও গড়ে উঠেনি এসব সুযোগ-সুবিধা।

চরম দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে যাত্রীদের। প্রতিদিন এই রেলপথ দিয়ে ঢাকা, খুলনা, রাজশাহী, দিনাজপুর ও নীলফামারীগামী ২টি মেইলসহ ৭টি আন্তনগর ট্রেন চলাচল করে। শুধুমাত্র একমুখি রকেট মেইল, আন্তনগর তীতুমীর ও বরেন্দ্র ট্রেন থামে এই ষ্টেশনে।

ফলে ট্রেনে যাতায়াত সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে হিলিসহ পাশ্ববর্তী উপজেলার শত শত মানুষ। রেলওয়ে ষ্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রী রবিউল হক, হাসান আলী, আসমা বেগম জানান, যাত্রী ছাউনি না থাকায় বৃষ্টির সময় ভিজে ও গরমের সময় রোদে দাঁড়িয়ে থেকে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করতে হয়।

হিলি রেলওয়ে ষ্টেশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী ষ্টেশন মাষ্টার মো. রুহুল আমিন জানান, ‘বি’ শ্রেণীর এই ষ্টেশনে ৩ জন মাষ্টারের স্থলে রয়েয়ে মাত্র ১ জন , ৪ জন পয়েন্টসম্যানের স্থলে রয়েছে ২ জন , ১ জন বুকিং সহকারি, ২ জন গেটম্যান ও ১ পোর্টার-এর পদ দীর্ঘদিন ধরে রয়েছে। এ ব্যাপারে উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

তবে এখন পর্যন্ত প্রয়োজনীয় জনবল পাওয়া যায়নি। হাকিমপুর পৌরসভার মেয়র জামিল হোসেন চলন্ত জানান, হিলি রেলষ্টেশনে ঢাকাসহ অন্যান্য রুটে চলাচলকারী ট্রেন দাঁড়ানোর জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরের যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে। আশা করছি অচিরেই ফলাফল পাওয়া যাবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য