আগামী ১২ই জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে ১৬তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। নয় দিনব্যাপী এ চলচ্চিত্র উৎসবে আট দেশের নির্মাতাদের সঙ্গে জুরি বোর্ডের সদস্য হিসেবে থাকছেন চিত্রশিল্পী ও অভিনেত্রী বিপাশা হায়াত। উৎসবের ‘উইমেন ফিল্মমেকারস সেকশন’-এ বিচারক হিসেবে থাকছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে বিপাশা হায়াত বলেন, হ্যাঁ, এবারের আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘উইমেন ফিল্মমেকারস সেকশন’-এ বিচারক হিসেবে থাকছি আমি। এ উৎসবে যোগ দেয়া অবশ্যই আনন্দের এবং নতুন অভিজ্ঞতার। এক ধরনের সম্মান বা স্বীকৃতিও বলতে পারেন।

এত বছর যে পথ ধরে চলেছি এবং চর্চা করেছি সেটা থিয়েটার, টেলিভিশন, চিত্রনাট্য, পরিচালনা, অভিনয়, চিত্রকর্ম, আবহ সঙ্গীত বা সম্পাদনায়, সার্বিকভাবে এ বিষয়গুলো এ ক্ষেত্রে কাজে লাগবে। এদিকে বিপাশা হায়াত মুক্তির অপেক্ষায় থাকা ‘হালদা’ ছবির পোস্টারও ডিজাইন করেছেন এবার।

এ ছবিটি ১লা ডিসেম্বর প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে। ছবিটি পরিচালনা করেছেন তৌকির আহমেদ। এর আগে বিপাশা হায়াত তার বাবা অভিনেতা আবুল হায়াতের লেখা বইয়ের প্রচ্ছদ ডিজাইন করেন। বইয়ের নাম ছিল ‘শোধ’। এ বইটি ২০১৪ সালে প্রিয়মুখ প্রকাশনী থেকে বের হয়।

প্রসঙ্গত, বিপাশা হায়াতের অভিনয় কিংবা আঁকাআঁকির বিষয় যতটা না প্রচার-প্রসারে এসেছে বিপরীতে যেন গান তার পেছনেই রয়ে গেছে। অথচ বিপাশা হায়াতের সংস্কৃতি চর্চার শুরুটা গান দিয়েই। ওস্তাদ খালিদ হোসেন, আখতার সাদমানী, জাকির হোসেন, সানজিদা খাতুন, মিতা হকের মতো বরেণ্য সংগীতজ্ঞদের কাছে তার গান শেখা।

অথচ একটি সময় এসে বিপাশা হায়াতকে গান আর গাওয়া হয়নি। পাওয়া গেছে অভিনয়ে আর আঁকাআঁকিতে। এ ক্ষেত্রে বেশ সফলতা অর্জন করেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য