ভারতের জলপাইগুড়ি জেলার লাতাগুড়ি জঙ্গল এলাকায় এক ব্যক্তি গাড়ি থেকে নেমে মোবাইলে হাতির ছবি তোলার সময় বুনো প্রাণীটির আক্রমণে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান।

এনডিটিভি জানায়, বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বিকাল ৫টার দিকে ন্যাশনাল হাইওয়ে থার্টিওয়ান পোস্টের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

লাতাগুড়ি জঙ্গল থেকে একটি হাতি সড়কে উঠে পড়লে সেখানে যান চলাচল ব্যাহত হয়। জলপাইগুড়ি ব্যাংকের নিরাপত্তারক্ষী সাদিক রহমান (৪০) ওই সময় ওই সড়ক দিয়ে কর্মক্ষেত্রে যাচ্ছিলেন। দুর্ভাগ্যবশত তিনি গাড়ি থেকে নেমে হাতিটির ছবি তোলার চেষ্টা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুনো হাতিটি প্রচণ্ড আক্রোশে সাদিকের দিকে তেড়ে আসে এবং তাকে পায়ের নিচে চেপে ধরে।

“প্রাণ বাঁচানোর কোনো সুযোগই সাদিক পাননি। ১৫ মিনিট পর হাতিটি বনে অদৃশ্য হয়ে যায়।”

সাদিক ঘটনাস্থলেই মারা যান বলেও জানান তারা।

বন বিভাগের এক কর্মকর্তা এনডিটিভিকে বলেন, “ওই এলাকায় প্রায়ই বুনো হাতি দেখা যায় এবং সেগুলো প্রতিদিনই সড়ক এপার-ওপার করে। বন বিভাগ ওই সময় লোকজনকে যানবাহন থেকে বাইরে বেরিয়ে না আসার নির্দেশ দিয়েছে। সাদিক ওই নির্দেশ অমান্য করে হাতির কবলে পড়ে এবং বেঘোরে প্রাণ হারায়।”

পশ্চিমবঙ্গ বন বিভাগের তথ্যানুযায়ী গত বছর হাতির কবলে পড়ে ৮৪ জন নিহত হয়েছে।

এছাড়া ট্রেনের ধাক্কায় কয়েকটি হাতিও মারা গেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য