চলতি সময়ের জনপ্রিয় ফোকসংগীতশিল্পী মৌসুমী আক্তার সালমা। ক্লোজআপ ওয়ান প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে সংগীতে তার যাত্রা শুরু হয়। এ প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন তিনি। এরপর নিজের একক অ্যালবামগুলোর মাধ্যমে ধারাবাহিকভাবে বেশ কিছু মৌলিক ফোক গান শ্রোতাদের উপহার দিয়েছেন। পাশাপাশি ব্যস্ত সময় পার করেছেন স্টেজ শোতে। মধ্যে বিয়ে, সংসার ও ডিভোর্সের কারণে কিছু সময় গানে অনিয়মিত ছিলেন তিনি।

তবে ফের নতুন গানে সরব হয়েছেন। স্টেজ শো ও নতুন গান নিয়ে সালমার ব্যস্ততাও এখন বেশ। সব মিলিয়ে কেমন চলছে দিনকাল? সালমা বলেন, খুব ভালো। গানে গানে সময় কাটছে বলতে পারেন। মেয়ে স্নেহাকে দেখাশোনা করা, আমার পড়াশোনা ও গান নিয়ে খুব ভালো কাটছে সময়টা। বর্তমান ব্যস্ততা কি নিয়ে? সালমা বলেন, মূল ব্যস্ততা এখন স্টেজ শো নিয়ে। কারণ এরইমধ্যে শীতের মৌসুম শুরু হয়ে গেছে।

শীতের মৌসুম মানেই স্টেজের মৌসুম। এখন স্টেজের টানা ব্যস্ততা যাচ্ছে। মধ্যে বন্যা ও রোহিঙ্গা ইস্যুর কারণে স্টেজ শোর আয়োজন কম হয়েছে। তবে এখন ধীরে ধীরে তা বাড়ছে। এই ব্যস্ততা অন্তত আরো আড়াই-তিন মাস চলবে। স্টেজে শো করতে কেমন লাগে? সালমা বলেন, স্টেজই হচ্ছে শিল্পীদের আসল জায়গা, যেখানে সরাসরি গান শোনানো যায় শ্রোতাদের। ভালো-মন্দ, দোষ-ত্রুটি সব কিছু শ্রোতাদের সামনেই হয়।

তাদের সাড়াটাও সরাসরি পাওয়া যায়। তাই আমি স্টেজে গাইতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। এটা আমার ভালোবাসার জায়গা। নতুন গানের কি খবর, কাজ কি চলছে? সালমা বলেন, নতুন বেশ কিছু গানের কাজ চলছে। কিছু গানের রেকর্ডিংও শেষ হয়েছে। ভিডিওর পরিকল্পনা করছি। আমি গানগুলো নিয়ে খুব আশাবাদী। এগুলো সামনেই একটা একটা করে শ্রোতাদের জন্য প্রকাশ করবো।

সিনেমায় তো প্লেব্যাক করলেন? সালমা বলেন, সিনেমায় প্রথমবারের মতো আইটেম গান গাইলাম। মাজহার বাবু পরিচালিত ‘ঠোকর’ ছবিতে থাকবে এ গানটি। লিমন আহমেদের কথায় এর সুর করেছেন জিয়াউদ্দিন আলম। আমার বিশ্বাস গানটি ভালো লাগবে সবার। বর্তমানে দেশের সংগীতাঙ্গনের অবস্থা কেমন বলে মনে হচ্ছে? সালমা উত্তরে বলেন, এখনতো অবস্থা ভালো। ডিজিটালি গান প্রকাশ করা যাচ্ছে। নিজের গানের স্বত্ব রেখে গান প্রকাশ করা যাচ্ছে।

এটা খুব ভালো দিক। তাছাড়া অডিও কোম্পানিগুলো বিনিয়োগ করছে। ভিডিও তৈরি করছে তারা। গত কয়েক বছরের চেয়ে এখন অবস্থা ভালো বলেই মনে হচ্ছে। এ অবস্থা সামনে আরো ভালোর দিকে যাবে বলেই আমার প্রত্যাশা। একজন তরুণ সংগীতশিল্পী হিসেবে আমি আশাবাদী। ফোক গানের শিল্পী হিসেবেই সালমা বেশি পরিচিত। এ জায়গাটিতে বিশেষ কিছু করার পরিকল্পনা আছে?

সালমা বলেন, লালনের গান ও ফোক গান নিয়ে আমি বিশেষ কিছু করতে চাই। বেশ কিছু পরিকল্পনা আছে। তবে যেহেতু এগুলোর সঙ্গে আমি শুধু একাই জড়িত নই। একটি টিমওয়ার্কের ব্যাপার। তাই একটু সময় নিয়েই করবো।

তবে আমি এমন কিছু করতে চাই যা ফোক ও লালনের গান সংরক্ষণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। আপনার কন্যা স্নেহা কি গান করে? সালমা বলেন, আমি দেখে অবাক হই স্নেহাও আমার গানগুলো এখনই গুনগুন করার চেষ্টা করে। এর চেয়ে সুখের দৃশ্য আমার জন্য আর কি হতে পারে!

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য