জার্মানিতে জোট সরকার গঠনের একটি আলোচনা থেকে ‍উদারপন্থি দল এফডিপি সরে দাঁড়ানোর পর উদ্যোগটি ভেস্তে গেছে।

চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেলের রক্ষণশীল সিডিইউ-সিএসইউ জোট এবং গ্রিন পাটিকে ‘বিশ্বাসের কোনো ভিত্তি’ নেই বলে মন্তব্য করেছেন এফডিপির নেতা ক্রিস্টিয়ান লিন্ডনার, খবর বিবিসির।

বিবিসি জানিয়েছে, সরকার গঠনের আলোচনা ভেস্তে যাওয়ায় এরপর কী হবে তা পরিষ্কার নয়। সোমবার দিনের কোনো এক সময় চ্যান্সেলর মের্কেলের দেশটির প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক ওয়াল্টার স্টিনমিয়ারের সঙ্গে দেখা করে পরিস্থিতি অবহিত করার কথা রয়েছে।

পরিস্থিতি বিবেচনায় আগাম নির্বাচন দেওয়ার ক্ষমতা আছে প্রেসিডেন্টের।

মের্কেল জানিয়েছন, আলোচনা ভেস্তে যাওয়ায় তিনি দুঃখ পেয়েছেন, বিষয়টি সম্পর্কে জানাতে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে দেখা করবেন তিনি।

সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত দেশটির জাতীয় নির্বাচনে মের্কেলের নেতৃত্বাধীন জোটই জয়ী হয়, কিন্তু সরকার গঠনের মতো সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। এই নির্বাচনে অনেক ভোটারই প্রধান ধারার পার্টিগুলোকে ভোট না দিয়ে অন্যান্য দলগুলোকে ভোট দিয়েছে।

নির্বাচনে তৃতীয় সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হয়েছে উগ্রপন্থি জাতীয়তাবাদী এএফডি। পার্লামেন্টে আসন পেয়েই তারা ‘বিদেশিদের দখলদারির’ বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ঘোষণা দিয়েছে।

বিকল্প হিসেবে আগাম নির্বাচন এড়িয়ে গিয়ে গ্রিন পার্টিকে নিয়ে সংখ্যালঘু সরকার গঠন করতে পারেন মের্কেল, কিন্তু এ বিষয়ে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করেনি গ্রিন পার্টি।

উদ্ভুত পরিস্থিতিকে মের্কেলের ১২ বছরের চ্যান্সেলর জীবনের সবেচেয়ে কঠিন সঙ্কট বলে মন্তব্য করেছে জার্মান দৈনিক ফ্র্যাঙ্কফুর্টার অগামাইনে সাইঠুং।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য