চলতি সময়ের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী সাবরিনা পড়শী। ধারাবাহিকভাবে এরইমধ্যে বেশ কিছু শ্রোতাপ্রিয় গান তিনি উপহার দিয়েছেন। বিশেষ করে বেশ কিছু অ্যালবামে পড়শীর করা গানগুলো শ্রোতারা ভালোভাবে গ্রহণ করেছেন। এর পাশাপাশি চলচ্চিত্রেও নিয়মিত প্লেব্যাক করছেন এ গায়িকা। আর পড়শী সব থেকে বেশি ব্যস্ত স্টেজে। দেশ-বিদেশের স্টেজ শো নিয়ে সব সময়ই ব্যস্ততা তার।

সব মিলিয়ে বর্তমান দিনকাল কেমন কাটছে পড়শীর? উত্তরে এ গায়িকা বলেন, খুব ভালো চলছে। গানের মধ্যদিয়েই সময় কাটছে। আর গানের মধ্যে সময় কাটাতে আমি খুব পছন্দ করি। বর্তমান ব্যস্ততা কি নিয়ে? পড়শী বলেন, মূল ব্যস্ততা স্টেজ শো নিয়ে। পড়াশোনাটা সামলে স্টেজ শো করছি। পাশাপাশি নতুন গানের কাজও চলছে।

মিউজিক ভিডিওর পরিকল্পনা করছি। সব মিলিয়ে ব্যস্ততার মধ্যে দিয়েই কেটে যাচ্ছে সময়। স্টেজ শো করতে কেমন লাগে? পড়শী বলেন, আমি শুরু থেকেই স্টেজে গাইতে বেশি পছন্দ করি। আমার সব থেকে স্বাচ্ছন্দ্যের জায়গাটাও স্টেজ। দেশ এবং দেশের বাইরে বিভিন্ন স্থানে গাওয়ার অভিজ্ঞতা হয়েছে আমার। আসলে সরাসরি গান শোনাতে কার না ভালো লাগে। কারণ এর মাধ্যমে শ্রোতাদের সরাসরি সাড়াটা পাওয়া যায়।

নতুন গানের কি অবস্থা? অ্যালবাম কি করা হবে সামনে? পড়শী বলেন, পূর্ণ অ্যালবাম আর করবো না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। কারণ ৮-১০টি গান নিয়ে অ্যালবাম করে লাভ হয় না। সব গান প্রচারণাও করা যায় না সমানভাবে। তাই সিঙ্গেলই বেশি করবো। আর করতে হলে তিন গান নিয়ে ইপি অ্যালবাম করবো। এরইমধ্যে কয়েকটি নতুন গানের কাজ করেছি। সেগুলো সামনে নির্দিষ্ট সময় পর পর প্রকাশ হবে ভিডিওসহ। আর মিউজিক ভিডিওর কি অবস্থা? পড়শী বলেন, আমি সব সময় মানসম্পন্ন মিউজিক ভিডিও করায় বিশ্বাসী।

সময় নিয়ে হলেও কোয়ালিটি যেন থাকে সেই চেষ্টা করি। আমার ইমেজের সঙ্গে যায় এমন ভিডিও করার পরিকল্পনা থাকে সব সময়। এরইমধ্যে ইমরান ভাইয়ার সঙ্গে একটি গান করেছি ‘আবদার’ শিরোনামে। সেটি মিউজিক ভিডিও আকারে খুব শিগগিরই আসবে। অন্যদিকে জুয়েল মোর্শেদ ভাইয়ের সুরে একটি গান করেছি। ‘পথ‘ শীর্ষক এ গানটির ভিডিও খুব শিগগিরই করবো। এছাড়াও আরও কিছু পরিকল্পনা আছে। সংগীতের অবস্থা এই সময়ে কেমন বলে মনে হচ্ছে? পড়শী বলেন, আসলে আমি তো ছোট মানুষ। তারপরও আমার মনে হয় এখন অবস্থা ভালো।

কারণ স্বত্ব নিজের কাছে রেখে শিল্পীরা গান প্রকাশ করতে পারছে। এটা একটা ভালো দিক। ডিজিটালি গান প্রকাশ হচ্ছে। এখন গান শোনার মাত্রা আরও বেড়েছে। কিন্তু মাধ্যমটা পরিবর্তন হয়েছে। আমি মনে করি সামনে আরও ভালোর দিকে যাবে ইন্ডাস্ট্রি। আরজে হিসেবেওতো কাজ করছেন নিয়মিত? পড়শী বলেন, হ্যাঁ। আসলে ভিন্নর্ধর্মী কাজ করাটা আমি খুব উপভোগ করি। তারই ধারাবাহিকতায় শখের বসেই আরজেগিরি করছি। জাগো রেডিও স্টেশনে ‘পড়শী নাইট’ শীর্ষক একটি শো করছি নিয়মিত। এখান থেকে অপ্রত্যাশিত সাড়া পাচ্ছি। আমি নিজে অনেক বেশি উপভোগ করছি বিষয়টি।

একটি সিনেমায় শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করার অভিজ্ঞতাও হয়েছে। সামনে কি সিনেমায় পাওয়া যাবে আপনাকে? পড়শী বলেন, ওই যে বললাম, ভিন্নধর্মী কাজ করতে ভালো লাগে। তারই ধারাবাহিকতায় সিনেমায় কাজ করেছি। এরপর আরও কিছু প্রস্তাব ছিল। কিন্তু সেগুলো করিনি। আসলে আমার মনের মতো গল্প ও চরিত্র হলেই সিনেমায় কাজ করবো। না হলে না। কারণ আমার মূল পরিচয় শিল্পী। শিল্পী হয়েই মানুষের হৃদয়ে বেঁচে থাকতে চাই আজীবন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য