আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধা সদর উপজেলার খোলাহাটী ইউনিয়নের গোদার হাটে প্রয়াত অমূল্য চন্দ্র সরকারের কেয়ারটেকার কামাল হোসেনের মৎস্য প্রকল্পের মাছ লুটপাট করে নিচ্ছে ওই এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা। এতে বাধা দিলেই ওই সন্ত্রাসী চক্র উল্টো প্রকল্পের মালিকদের উপরেই চড়াও হচ্ছে। ফলে উভয়পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা রয়েছে।

কামাল হোসেনের অভিযোগে জানা গেছে, ওই এলাকার মৃত করিম ব্যাপারীর তিন স্ত্রীর সন্তান আলম, আজাদ, সোবেদ আলী, কাসেম, ভুট্টু ও তাদের পরিবারের মহিলারা এই লুটপাট ও সন্ত্রাসীরা তৎপরতায় জড়িত। ইতোমধ্যে মৎস্য প্রকল্পের দুই লক্ষাধিক টাকার মাছ লুটপাট করে নিয়ে গেছে প্রভাবশালী ওই সন্ত্রাসী চক্র।

শুধু মাছই নয়, প্রকল্প এলাকার বিভিন্ন গাছ-গাছালিও তারা কেটে নিয়ে যাচ্ছে। এব্যাপারে লুটপাটকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়াত অমূল্য চন্দ্র সরকারের ছেলে মাধব সরকার বাদী হয়ে আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। আদালত থেকে গাইবান্ধা সদর থানা পুলিশকে এ বিষয়ে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ প্রদান করা হয়।

আদালতের নির্দেশে পুলিশ ঘটনার স্থান পরিদর্শন করে মাছ ধরতে নিষেধ করে। এছাড়া পুলিশ এলাকার শান্তি বিনষ্ট না করার জন্য মৌখিকভাবে নির্দেশ দেয়। কিন্তু পুলিশের এই নির্দেশকে অমান্য করে অবাধে মাছ লুটপাট অব্যাহত রেখেছে সন্ত্রাসীরা।

কামাল হোসেন আরও জানান, তিনি প্রায় ১২ বছর থেকে গোদার হাট এলাকার অমূল্য চন্দ্র সরকারের জমিতে প্রকল্প করে রায়হান আলম সাখি নামের এক ব্যক্তির সহযোগিতায় মাছ চাষ করে আসছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য