ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া রেলগেটে মালবাহী ট্রেন ও কাভার্ড ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। আজ বৃহস্পতিবার ভোর ৫ টায়, বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির মোড়ে রেলগেটে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

ট্রেন ও কার্বাট ভ্যানের সংঘর্ষে, কার্বাট ভ্যানের হেলপার বিপ্লব হোসেন (২২) ঘটনা স্থলে নিহত হয়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় কাভার্ড ভ্যানের চালক আবুল কালামকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত কাভার্ড ভ্যানের হেলপার বিপ্লব হোসেন, নিলফামারী সদর উপজেলার গবিন্দপুর গ্রামের জয়নাল আবেদিনের ছেলে। ও কাভার্ড ভ্যানের চালক আবুল কালাম একই উপজেলার কুশুমপুর গ্রামের অহেদ আরীর ছেলে।

বড়পুকুরিয়া রেলগেট বাজারের প্রত্যক্ষ দর্শিরা ও বড়পুকুরিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ সিরাজুল হক বলেন, ভোর ৫ টায়, বগুড়া থেকে আসা রংপুর-ট-১১-০৩৪২ কাভার্ড ভ্যান রেল লাইন অতিক্রম করতেছিল, এসময় ফুলবাড়ী থেকে ছেড়ে আসা পার্বতীপুরগামী একটি মালবাহী ট্রেন, সজরে কাভার্ড ভ্যানটিকে ধাক্কা মারে, এতে কাভার্ড ভ্যানটি দুমড়ে-মুছড়ে যায়, এসময় স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় কাভার্ড ভ্যানটির চালককে উদ্ধার করলেও, ঘটনা স্থলে হেলপার বিপ্লব মারা যায়।

এদিকে বড়পুকুরিয়া রেলগেটে ট্রন ও কাভার্ড ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষের কারনে ফুলবাড়ী-পার্বতীপুর রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়ে,ফলে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা দ্রুতযান এক্সপ্রেস আন্তনগর ট্রেনটি বড়পুকুরিয়া রেলগেটে আটকা পড়ে, এর চার ঘন্টা পর, বড়পুকুরিয়া তাপ বিদুৎ কেন্দ্রের ক্রেনদিয়ে রেল লাইন থেকে কাভার্ড ভ্যানটি সরিয়ে নিলে, সকাল সাড়ে ৯ টায়, দ্রুতযান এক্সপ্রেটি পার্বতীপুরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে ও ট্রেন চলাচল সাভাবিক হয়।

এদিকে ঘটনার পর থেকে পলাতক আছে বড়পুকুরিয়া রেলগেটের গ্যাটম্যান আজিজুল ইসলাম। সে ঘটনার সময় কোথায় ছিল কেউ বলতে পারেনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য