দিনাজপুর সংবাদাতাঃ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) গোলাম রাব্বী বলেছেন দুর্যোগ হয় যখন তখন ধনী-গরীব দেখেনা। যে ক্ষতি হয়েছে তা ২-৩ বছরে পূরণ হবে না। এই জেলায় ২৩ হাজার পরিবারের বাড়ী ঘর নেই। সরকার ও সংগঠন এবং ব্যক্তিগত পর্যায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের সামান্য সহযোগিতা প্রদান করেছে। এবার বন্যায় দিনাজপুর জেলায় ১২শ ২৩ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

৮ নভেম্বর বুধবার জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতি দিনাজপুর জেলা শাখার সদস্যদের সাম্প্রতিক বন্যায় বসতবাড়ী ক্ষতিগ্রস্থ সদস্যদের মাঝে আর্থিক সহায়তা প্রদান করতে গিয়ে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথাগুলো বলেন। বাংলাদেশ অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতি দিনাজপুর জেলা শাখার চেয়ারম্যান ও রংপুর বিভাগীয় প্রতিনিধি আলহজ্ব মোকাররম হোসেন খান তার বক্তব্যে বলেন সাম্প্রতিক বাংলাদেশের ভয়াবহ বন্যায় মানুষের প্রচুর ক্ষতি হয়েছে।

এই সামান্য আর্থিক সহায়তার মাধ্যমে সদস্যদের কিছুটা হলেও উপকার আসবে। স্বাগত বক্তব্য রাখতে গিয়ে সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আব্দুল মতিন বলেন এধরনের অনুদানের অনুষ্ঠান এই প্রথম। দিনাজপুর জেলা শাখার চেয়ারম্যান ও রংপুর বিভাগীয় প্রতিনিধি আলহাজ্ব মোকাররম হোসেন বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ রংপুর বিভাগের সদস্যদের জন্য আর্থিক অনুদান চেয়ে কেন্দ্রীয়ভাবে আবেদন জানান।

তারই প্রেক্ষিতে কেন্দ্র ক্ষতিগ্রস্থদের আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছে। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন মোঃ ফসিউদ্দিন আহম্মেদ। প্রধান অতিথি গোলাম রাব্বী ৯নং সদস্যকে ৫ হাজার টাকা করে মোট ৪৫ হাজার টাকা প্রদান করেন। এ সময় সমিতির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য