দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ৫ নভেম্বর রোববার বিকালে দিনাজপুর লোকভবনে বাংলাদেশ নব জাতীয়করণকৃত ও বেসরকারী প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মোঃ কামাল উদ্দিন।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোঃ রুহুল আমীন, মোঃ নজরুল ইসলাম, মোঃ মেহেদী হাসান কবীর, ফয়জুর রহমান, আসাদুজ্জামানসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। তৃতীয় ধাপে ৯৬০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পূর্ণাঙ্গ গেজেট অনতিবিলম্বে প্রকাশসহ বেতন-ভাতা প্রদান ও বাদ পড়া বিদ্যালয়গুলি জাতীয়করনের লক্ষ্যে দিনাজপুর জেলায় এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত আলোচনা সভায় বিভিন্ন বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ অংশ নেন। তাদের ৫টি দাবীসমূহ হচ্ছে-তৃতীয় ধাপে জাতীয়করনকৃত বিদ্যালয়ের শিক্ষক গেজেট দ্রুত প্রকাশ ও প্রধান শিক্ষক স্ব পদে বহাল রাখা, ২০১২ সালে সমাপনী পরীক্ষা দেয় নাই কিন্তু ২০১৩-২০১৬ সালে সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে শতভাগ সফলতা অর্জন করেছে এরকম বিদ্যালয়গুলোকে জাতীয়করন করা প্রয়োজন, প্রধান শিক্ষকদের দ্বিতীয় শ্রেণীর পদ-মর্যাদা সাপেক্ষে দশম স্কেলে বেতন উন্নীত করা প্রয়োজন, বিভিন্ন কারনে বাদ পড়া সরকারী অর্থায়নে প্রতিষ্ঠিত কমিউনিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোকে আত্মীকরন করা প্রয়োজন এবং অধিগ্রহনকৃত সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সৃষ্ট প্রধান শিক্ষক পদে কর্মরত শিক্ষকদের মধ্য থেকে যোগ্যতাভিত্তিক প্রধান শিক্ষক পদে আত্মীকরন করা প্রয়োজন।

এ ব্যাপারে উক্ত সংগঠনের পক্ষ থেকে ইতিপূর্বে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য