ধূমপানের ক্ষতিকর দিক বলে শেষ করা যাবে না। শুধু এটি নিজের সর্বনাশ ডেকে আনে না অন্যদেরও বিপদের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। সম্প্রতি বিখ্যাত ‘সার্কুলেশন’ জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে- পিতা-মাতা ধূমপান করলে শিশুরা উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত্ম হয়। জার্মানির পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের বিভিন্ন স্কুলে ভর্তির সময় ডাটা সংগ্রহ করা হয়।

এতে দেখা যায়, প্রায় ২৮ ভাগ শিশুর পিতা বা মাতা ধূমপান করেন। পরবর্তী সময় ২০০৭-০৮ সময়ে ফলোআপে দেখা যায়, যাদের পিতা-মাতা ধূমপান করছেন তাদের ১৫ ভাগ উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত্ম হয়েছে। একই গবেষণায় দেখা গেছে, যারা মিষ্টি বা শর্করা-জাতীয় খাবার বেশি খায় তাদের রক্তচাপেও আক্রান্ত্মের হার বাড়ে।

এ গবেষণাটি পরিচালনা করেছে সেন্টার অর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন। গবেষণায় দেখা গেছে, যারা বেশি মিষ্টি-জাতীয় খাবার খায় বা যাদের মোট ক্যালরির ৩০ শতাংশ শর্করা থেকে আসে তাদের রক্তে ভালো কোলেস্টেরল এইচডিএল কমে ও খারাপ কোলেস্টেরল এলডিএল বাড়ে।

গর্ভাবস্থায় চিপস খেলে নবজাতকের ওজন কম হয় : গর্ভাবস্থায় যেসব নারী চিপস খান তাদের সন্ত্মান কম ওজন নিয়ে জন্মগ্রহণ করে। স্পেনের একদল গবেষক এ তথ্য জানিয়েছেন। সেন্টার ফর রিসার্চ ইন এনভায়রনমেন্ট এপিডেমিওলজির গবেষকরা জানান, গর্ভাবস্থায় চিপস খেলে নবজাতক শিশুর স্বাস্থ্য সমস্যা হওয়ার অধিক ঝুঁকি রয়েছে। চিপসে অ্যাক্রিলিমিড নামে একধরনের উপাদান আছে, যা শিশুর মাথার আকৃতি ছোট করে দেয়।

সাধারণত ভাজা-পোড়া, তৈলাক্ত খাবার ও কফিতে এক্রিলিমিড নামের রাসায়নিক উপাদান থাকে। যেসব মা গর্ভাবস্থায় অধিক পরিমাণে চিপস, ক্রিপস এবং বিস্কুট-জাতীয় খাবার খান তাদের শিশুদের গড় ওজন স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক কম হয়। বিষয়টি নিয়ে ২০০৬ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত্ম ডেনমার্ক, যুক্তরাজ্য, গ্রিস, নরওয়ে ও স্পেনের ১ হাজার ১০০ গর্ভবতী মহিলার ওপর পরীক্ষা চালানো হয়।

এ সময় দেখা যায়, যেসব মা গর্ভাবস্থায় চিপস-জাতীয় খাবার খেতে বেশি পছন্দ করেন তাদের সন্ত্মানদের ওজন স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক কম হয়। এ সময় দেখা যায়, ১৮৬ মহিলার শিশু খুব ছোট মাথা ও ওজন নিয়ে জন্মগ্রহণ করেছে। কারণ খুঁজতে গিয়ে তাদের খাদ্য তালিকার খোঁজ করে দেখা যায় তারা অধিক পরিমাণে চিপস-জাতীয় খাদ্য গ্রহণ করেছেন। ফলে তাদের গর্ভের সন্ত্মান কম ওজন নিয়ে জন্মগ্রহণ করেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য