গ্রামবাংলার ঐতিহ্য টিকিয়ে রাকতে ৩৫ বছর ধরে উপজেলার মশালডাঙ্গী গ্রামের কালু মিয়া (৫০) মানধাত্তার আমল থেকে পূর্ব পুরুষের প্রথা গ্রাম-গঞ্জের হাটে বাজারে মাটিতে বসে চুল কাঁটা স্মৃতি ধরে রাখতে নাপিতের কাজ করছে।

সে গ্রামের বাড়ী-বাড়ী এবং হাটে-বাজারে গিয়ে মাটিতে মড়ায় বসে গ্রামের গরীব দুঃখি মানুষের অল্প পয়সায় মাথার চুল কেটে ও সেভ করে দিচ্ছে।

কালুর কাছে চুল কাটতে আসা জুয়েল বলেন, আমরা গ্রামের গরীব দুঃখি মানুষ দিনমজুর দিয়ে সংসার চালাই। বর্তমান যুগের সানসৈকত সেলুনে চুল কাঁটা ও সেভ করতে ৩০ থেকে ৪০ টাকা লাগে। তাই আমাদের গরীবের বন্ধু গ্রামের কালু নাপিতের নিকট ৫ টাকায় সেভ ও ১০ টাকায় চুল কাটাই। টাকা না দিলেও বাকীতে কাজ করে দেয়।

কালু নাপিত বলেন, আমার ৪ ছেলে-মেয়ে ও আমরা স্বামী-স্ত্রী ২ জন। সারাদিন মাঠে কাজ করি আর বিকালে গ্রামের হাটে-বাজারে নাপিতের কাজ করতে যাই। এতে আমার বেশ ভালই আয় হয়। তা দিয়ে আমার সংসার বেশ ভালই চলে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য