কাহারোল (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ কাহারোলে উপজেলা পরিষদ সংগ্লন পূনভর্বা নদী থেকে শ্যালো মেশিনের সাহায্যে ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলনের ফলে পরিষদের বাউন্ডারী ওয়াল, মৎস অফিস, শিক্ষা অফিস ও উপজেলা পরিষদের অবস্থিত সরকারী অফিস সহ বিভিন্ন অফিস গুলো হুমকির সম্মূখিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলা পরিষদের সন্নিকট আনুমানিক ২শত গজ উত্তর পূর্ব দিক দিয়ে বয়ে যাওয়া পূনভর্বা নদী থেকে শ্যালো মেশিনের সাহায্যে ড্রেজারের মাধ্যমে উপজেলা শিল্প কলা একাডেমিতে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের কারণে পরিষদের বিভিন্ন সরকারী অফিস ভবন গুলো হুমকির মুখে দাঁড়িয়েছে বলে অনেকেই দাবি করেছেন।

জানা যায়, গত ১ সপ্তাহ ধরে নদী থেকে বালু তুলে নব-নির্মিত শিল্পকলা একাডেমি ভবনের ফাঁকা জায়গা গুলো ভরাট করতে দেখা যাচ্ছে। বালু উত্তোলনের বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল মান্নাফ এর কার্যালয়ে ৩১ অক্টোবর’১৭ বেলা দেড়টার দিকে তার সংঙ্গে সরাসরি কথা হলে তিনি জানান, শিল্পকলা একাডেমিতে নদী থেকে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে তা আমি জানতাম না, আজ মঙ্গল বার দেখেছি তবে এ বিষয়ে আমার দপ্তরের উপজেলা সহকারী প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল হাকিম জানেন।

তৎক্ষানিক উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল মান্নাফ সহকারী প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল হাকিম কে তার রুমে ডেকে আনেন এবং বালু ভরাটের বিষয়টি জানতে চাইলে উপজেলা সহকারী প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল হাকিম সন্তোষ জনক কোনো জবাব দিতে পারেনি। প্রসঙ্গগত উপজেলা পরিষদের উত্তর পাশ্বে উপজেলা কেন্দ্রীয় ঈদ গাঁ মাঠটি উপস্থিত।

সেই মাঠটি নিচু থাকায় পূর্বের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আসলাম মোল্লা ও উপজেলা পরিষদের চেয়ার মোঃ মামুনুর রশীদ চৌধুরী ও ঈদ গাঁও ব্যবস্থাপনা কমিটি ঈদ গাঁও মাঠে নদী থেকে বালু তুলে ভরাট করার সময় উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল মান্নাফ বালু তোলার বিরোধীতা করে পুরাতন উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানান, উপজেলা পরিষদের নিকট থেকে বালু উত্তোলন করা হলে উপজেলা পরিষদের ভবন গুলো ভবিষ্যৎদে দেবে যেতে পারে বলে আশংক্ষার বানী দিয়েছেন।

আর নদীর সেই স্থান থেকেই বালু উত্তোলন করে উপজেলা শিল্প কলা একাডেমির ফাঁকা জায়গা গুলো পুরোদমে ভরাট কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। এ ব্যাপারে নির্বাহী অফিসারের সাথে কথা হলে তিনি জানান, শিল্প কলা একাডেমি প্রাঙ্গণে নদী থেকে বালু উত্তোলনের বিষয়টি নিয়ে উপজেলা প্রকৌশলীর সঙ্গে কথা বলার পর এ বিষয়ে জানা যাবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য