মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস আবারো উত্তর কোরিয়ায় সামরিক হামলা চালানোর হুমকি দিয়েছেন। তিনি দক্ষিণ কোরিয়া সফরে গিয়ে রোববার স্বাগতিক দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী সং ইয়ং-মু’র সঙ্গে সাক্ষাতে ওই হুমকি দেন। ম্যাটিস বলেন, উত্তর কোরিয়া ওয়াশিংটনে হামলা চালালে পাল্টা মারাত্মক হামলা চালাবে আমেরিকা।

আমেরিকা ও তার মিত্রদের ওপর সম্ভাব্য হামলার ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করে ম্যাটিস বলেন, উত্তর কোরিয়া হামলার কাজে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করলে তার কঠোর জবাব দেয়া হবে। সিউল সফরে মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী ম্যাটিস দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইনের সঙ্গেও বৈঠক করেন।

এদিকে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে যেকোনো ব্যবস্থা নেয়ার পথ খোলা রেখেছে ওয়াশিংটন। তিনি বলেন, পিয়ংইয়ংয়ের পক্ষ থেকে উস্কানিমূলক তৎপরতা চালানো হলে সামরিক, অর্থনৈতিক ও কূটনৈতিক চাপ প্রয়োগ করে তার জবাব দেয়া হবে।

সাম্প্রতিক সময়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের যুদ্ধংদেহী মনোভাবের কারণে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে ওয়াশিংটনের সম্পর্কে তীব্র টানাপড়েন বিরাজ করছে। কোরীয় উপদ্বীপে উত্তেজনা সৃষ্টির মূল হোতা আমেরিকা বারবার উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা বন্ধ করার দাবি জানাচ্ছে।

কিন্তু উত্তর কোরিয়া ওই আহ্বান প্রত্যাখ্যান করে বলেছে, আমেরিকা ও তার মিত্ররা যতদিন পিয়ংইয়ংকে হুমকি দিয়ে যাবে ততদিন নিজের সামরিক সক্ষমতা শক্তিশালী করে যাবে উত্তর কোরিয়া

সম্প্রতি উত্তর কোরিয়া এমন একটি আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চারিয়েছে যেটি দিয়ে আমেরিকার মূল ভূখণ্ডের যেকোন স্থানে আঘাত হানা সম্ভব।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য